11.4 C
Toronto
শুক্রবার, মে ২০, ২০২২

রবীন্দ্রনাথ কবে, কোথায় নোবেল পুরস্কার নিয়েছিলেন

- Advertisement -
রবীন্দ্রনাথ কবে, কোথায় নোবেল পুরস্কার নিয়েছিলেন - The Bengali Times
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

আমরা সবাই জানি নোবেল পুরস্কার প্রদান করে থাকে সুইডিস একাডেমির নোবেল কমিটি৷ রাজধানী স্টকহোমে নির্দিষ্ট দিনে অর্থাত্‍ নভেম্বর মাসের দ্বিতীয় বৃহস্পতিবার প্রতি বছর পুরস্কার ঘোষণা করা হয়ে থাকে৷ সে বছর তারিখটি পড়েছিল ১৩৷ ডিসেম্বরের ১০ তারিখে ঘোষিত লেখক পুরস্কারটি গ্রহণ করেন এবং একটি বক্তৃতা প্রদান করেন৷ কিন্তু মজার ব্যাপার হলো রবীন্দ্রনাথ নিজে উপস্থিত থেকে নোবেল পুরস্কার কমিটির হাত থেকে পুরস্কার গ্রহণ করতে পারেননি৷ এমনকি বক্তৃতাটি দিতে দিতে সাত বছর পেরিয়ে গিয়েছিল৷

একথা এখনও সকলের জানা যে বিভিন্ন দেশের সাহিত্য সংস্থাগুলো বা পূর্বে নোবেল পুরস্কারপ্রাপ্ত লেখকগণ কমিটির কাছে সুপারিশ পাঠান৷ ইংল্যান্ডে এ দায়িত্ব রয়্যাল সোসাইটি অব লিটারেচারের সদস্যদের৷ প্রস্তাব হয়েছিল টমাস হার্ডির (১৮৪০-১৯২৪) নাম৷ কিন্তু সোসাইটির সদস্য স্টার্জ মূর (T. Sturge Moore) রবীন্দ্রনাথের নাম প্রস্তাব করেন৷

- Advertisement -

বলে রাখা প্রয়োজন মূরের রয়্যাল সোসাইটি অব লিটারেচারের সাতানব্বই জন সদস্য হার্ডির নাম প্রস্তাব করেছিল৷ মোট যে আটাশ জনের নাম প্রস্তাবিত হয়েছিল তাঁদের মধ্যে বাংলাভাষীদের পরিচিত লেখক গ্লাসিয়া দেলেদ্দা (১৮৭৫-১৯৩৬) বা আনাতোল ফ্রাঁস (১৮৪৪-১৯২৪)ও ছিলেন৷ সুইডিশ একাডেমীর আঠার জন সদস্যের একজন বাংলা জানা প্রাচ্যবিদ ইসারিয়াস টেগনা (১৮৪৩-১৯২৮) কমিটির বাকিদের উপর কোনো প্রভাব ফেলতে পারে নি জানা যায়৷ পেরেছিলেন যিনি তিনি হলেন সুইডেনের সমকালীন খ্যাতিমান কবি কার্ল গুস্তাফ হেইডেন স্টাম (১৮৫৯-১৯৪০) যিনি নিজেও পরবর্তী কালে ১৯১৬ সালে সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার পান৷ গীতাঞ্জলির ইংরেজি ও সুইডিস অনুবাদ পাঠ করে তিনি ভীষণ মুগ্ধ হন৷ এবং রবীন্দ্রনাথ ও গীতাঞ্জলি বিষয়ে লেখালেখির মধ্য দিয়ে কমিটির বাকিদের মুগ্ধতায় আবিষ্ট করেন৷ অবশেষে ১৩ নভেম্বর মঙ্গলবার ঘোষিত হয় রবীন্দ্রনাথের নাম৷

রবীন্দ্রনাথের ঠিকানা জানা না থাকায় ম্যাকমিলান পাবলিশার্সের নিকট থেকে সেটি যোগাড় করে লন্ডন থেকে সংবাদটি সরকারীভাবে রবীন্দ্রনাথকে পাঠানো হয় ১৪ নভেম্বর৷ লেখা ছিল SWEDISH ACADEMY AWARDED YOU NOBEL PRIZE LITERATURE PLEASE WIRE ACCEPTATION SWEDISH MINISTER৷ ১৫ নভেম্বর রবীন্দ্রনাথের নিকট সংবাদটি পৌঁছে, যদিও সেটি পৌঁছানোর দিন ও সময় নিয়ে মতভিন্নতা আছে, সেটি থাকাও হয়তো স্বাভাবিক৷
WIRE ACCEPTATION-এর উত্তর ১৭ নভেম্বর পাঠানো হয়৷ এরপর ২০ নভেম্বর সুইডিস একাডেমীর সেক্রেটারির টেলিগ্রাম আসে Nobel Prize will be solemnly handed over Stockholm 10th of December Invite you heartily though fear time will not allow your coming’৷ রবীন্দ্রনাথের পক্ষে যাওয়া সম্ভব না বিবেচনা করেই স্টকহোমের ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতকে আমন্ত্রণ জানানো হয় পুরস্কারটি কবির পক্ষে গ্রহণ করবার জন্য৷ রাষ্ট্রদূত কবির ধন্যবাদ বার্তা পাওয়ার জন্য যোগাযোগ করেন বাংলার তত্‍কালীন গভর্ণর লর্ড কারমাইকেলের সঙ্গে৷ রবীন্দ্রনাথ যে ধন্যবাদ বার্তা পাঠান সেটি ছিল এমন I beg to convey to the Swedish Academy my grateful appreciation of the breadth of understanding which has brought the distant near and has made a stranger a brother’৷

১০ ডিসেম্বর সোনার মেডেল ও ডিপ্লোমা গ্রহণ করেন রাষ্ট্রদূত ক্লাইভ৷ পড়ে শোনান রবীন্দ্রনাথের পাঠানো ধন্যবাদ বার্তা৷ ৯ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার কলকাতার গভর্নর হাউজে সে মেডেল ও ডিপ্লোমা সুইডিস কনসাল এবং সরকারী বেসরকারী বহু বিশিষ্ট ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে রবীন্দ্রনাথের হাতে তুলে দেন লর্ড কারমাইকেল৷

পুরস্কারপ্রাপ্ত কবিকে নোবেল বক্তৃতা দানের ব্যাপারে যে শর্ত ছিল সেটি তাহলে কবে পূর্ণ হলো? ততদিনে সাত বছর পার হয়ে গেছে৷ ১৯২১ সালে ২৬ মে বিকেল সাড়ে চারটায় কবি তার নোবেল বক্তৃতাটি প্রদান করেন৷

 

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles