1 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১, ২০২২

ভ্যাকসিন পাসপোর্ট পুনর্মূল্যায়নের সময় এসেছে

ভ্যাকসিন পাসপোর্ট পুনর্মূল্যায়নের সময় এসেছে - the Bengali Times
অন্টারিওর তথাকথিত ভ্যাকসিন পাসপোর্টের মূল্য পুনর্মূল্যায়নের সময় এসেছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রদেশের জনস্বাস্থ্য বিভাগের চিফ মেডিকেল অফিসার ডা. কিয়েরান মুর

অন্টারিওর তথাকথিত ভ্যাকসিন পাসপোর্টের মূল্য পুনর্মূল্যায়নের সময় এসেছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রদেশের জনস্বাস্থ্য বিভাগের চিফ মেডিকেল অফিসার ডা. কিয়েরান মুর। বৃহস্পতিবার এক ব্রিফিংয়ে এ মন্তব্য করেন তিনি।

ডা. কিয়েরান মুর বলেন, ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধে ভ্যাকসিন যেভাবে সুরক্ষা দিয়েছিল তা যদি না দিতে পারে তাহলে ভ্যাকসিন সনদ চালু রাখবো কিনা তা আমাদের পুনর্মূল্যায়ন করতে হবে। সংক্রমণের বিরুদ্ধে ক্ষয়িষ্ণু সুবিধার দিকে ইঙ্গিত করে এ কথা বলেন তিনি।

- Advertisement -

এই মুহূর্তে বার বা রেস্তোরাঁতে ইনডোর ডাইনিংসহ কিছু অনাবশ্যক স্থাপনায় প্রবেশ করতে চাইলে দুই ডোজ ভ্যাকসিন নেওয়ার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। কিন্তু ডা. মুর বলছেন, ওমিক্রনের সংক্রমণের ঝুঁকি দুই ডোজ ভ্যাকসিন খুব বেশি কমায় বলে মনে হয় না। যদিও হাসপাতালে ভর্তি ও মৃত্যু লক্ষ্যণীয় হারে কমিয়ে আনে এটি।

তৃতীয় ডোজ সংক্রমণের বিরুদ্ধে ৬০ শতাংশ সুরক্ষঅ দিয়ে থাকে। কিন্তু অন্টারিওর প্রিমিয়ার ডগ ফোর্ড এর আগে বলেছিলেন, পূর্ণাঙ্গ ভ্যাকসিনেটেডের সংজ্ঞা পরিবর্তনের কোনো পরিকল্পনা সরকারের নেই।

ডা. মুর বৃহস্পতিবার বলেন, দুই ডোজ ভ্যাকসিন ঠিক কি সুবিধা দেয় তা জানানোর ব্যাপারে এখন আমাদের সৎ হতে হবে। পাশাপাশি যেসব জনস্বাস্থ্য বিধিনিষেধ বলবৎ আছে সেগুলোর কার্যকারিতাও পর্যালোচনা করে দেখতে হবে। সামনে সপ্তাহ অথবা মাসে এ আলোচনাগুলো হবে বলে আমি মনে করি।

তিন ডোজের বাধ্যবাধকতা রেখে ভ্যাকসিন সনদ হালনাগাদ করতে প্রদেশের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন এনডিপি নেতা আন্দ্রিয়া হরওয়াথ ও লিবারেল নেতা স্টিভেন ডেল ডুকা। এর পেছনে তাদের যুক্তি হলো, বুস্টার ডোজ গ্রহণে গতি আনতে সাহায্য করবে এটা।
সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মুর বলেন, আন্তর্জাতিক ভ্রমণকে লক্ষ্য রেখে ফেডারেল সরকার পূর্ণাঙ্গ ভ্যাকসিনেটেডের সংজ্ঞায় কোনো পরিবর্তন আনে কিনা সে অপেক্ষায় আছে প্রদেশ। তবে জনস্বাস্থ্য সূচকগুলোয় উন্নতি আসায় অন্টারিওতে ভ্যাকসিন সনদ বাতিলের একটা সম্ভাবনা রয়েছে বলে ইঙ্গিত দেন তিনি।

ডা. মুর বলেন, সংক্রমণ হ্রাসে কতগুলো জনস্বাস্থ্য বিধি পরিপালনে আমরা সুপারিশ করবো
অথবা আইনী বাধ্যবাধকতা আরোপ করবো সে সিদ্ধান্ত আমাদের একটি সমাজ হিসেবে নিতে হবে। আমার মনে হয় সে আলোচনা শিগগিরই হবে। মাস্ক সম্ভবত সবশেষে প্রত্যাহার করা বিধান হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

ফোর্ড সরকার এর আগে বলেছিল, জানুয়ারি থেকেই ভ্যাকসিন সনদের বাধ্যবাধকতা প্রত্যাহার শুরু করবে সরকার। তবে ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর সে সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসে তারা।

This article was written by Sohely Ahmed Sweety as part of the Local Journalism Initiative.

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles