15.3 C
Toronto
বুধবার, মে ২৫, ২০২২

স্মৃতি থেকে আঁকা ম্যাপের মাধ্যমে ৩০ বছর পর মা-ছেলের পুনর্মিলন

- Advertisement -
স্মৃতি থেকে আঁকা ম্যাপের মাধ্যমে ৩০ বছর পর মা-ছেলের পুনর্মিলন - The Bengali Times

চার বছর বয়সে চীনের ইউনান প্রদেশ থেকে অপহৃত হন চীনের লি জিংওয়েই

চার বছর বয়সে চীনের ইউনান প্রদেশ থেকে অপহৃত হন চীনের লি জিংওয়েই। তখন স্থানীয় একটি শিশু অপহরণকারী চক্র তাকে ভুলিয়ে অন্য একটি পরিবারের কাছে বিক্রি করে দেয়। নিজের বাবা-মার কাছে ফিরে যাওয়ার তাড়নায় স্মৃতিতে ধরে রাখা নিজ গ্রামের একটি মানচিত্রের ছবি আঁকেন। যা অনলাইনে প্রকাশ হলে প্রায় তিনদশক পর দেখা পান আসল বাবা-মায়ের।

চীনের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলীয় ঝাওতাং শহরে লিয়ের আপন বাবা-মায়ের বসবাস। সেখান থেকে প্রায় ১৮০০ কিলোমিটার দূরে গুওয়াংডং প্রদেশে তাকে বিক্রি করে দেয়া হয়। সেখানে বেশ কিছু কাল থাকার পর আসল পিতা-মাতাকে খুঁজে বের করার চেষ্টা চালান।

- Advertisement -

পালক অভিভাবককে নিজের আসল ঠিকানার কথা জিজ্ঞেস করে এবং ডিএনএ তথ্যভাণ্ডার অনুসন্ধান করেও কিছু না পেয়ে শেষ পর্যন্ত ইন্টারনেটের শরণাপন্ন হন তিনি। গত ২৪ ডিসেম্বর স্মৃতিতে ধরে রাখা তার হারানো গ্রামের বাড়ি ও আশপাশের এলাকার একটি ম্যাপ আকেন। তার পর তা প্রকাশ করেন ডোউইন নামের ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপে।

শেয়ারিং অ্যাপ থেকে প্রাপ্ত মানচিত্রটি স্থানীয় পুলিশ একটি ছোট গ্রামের সঙ্গে মেলাতে সক্ষম হয়। এমনকি তারা সেই গ্রামের এক মহিলার সন্ধানও পায় যার ছেলে কিনা হারিয়ে গিয়েছিল।

পরে বাবা-মায়ের সঙ্গে ডিএনএ নমুনা মিলিয়ে নিশ্চিত করা হয় যে লি জিংওয়েই হচ্ছেন সেই মহিলার হারিয়ে যাওয়া ছেলে। এভাবেই তিন দশকেরও বেশি সময় পর লি জিংওয়েই ও তার মায়ের পুনর্মিলন হয়।

প্রকাশিত পুনর্মিলনের একটি ভিডিওতে দেখা যায় লি তার মায়ের মুখ থেকে মাস্ক সরিয়ে তাকে দেখছেন এবং তারপর তারা একে অপরকে জড়িয়ে ধরে কান্নায় ভেঙে পড়ছেন।

লি জিংওয়েই তার আঁকা মানচিত্র নিয়ে বলতে গিয়ে বলেন, তিনি তার গ্রামের পথ, বাড়িঘর, বাঁশঝাড়, একটা ছোট পুকুর, আর একটি ভবন অঙ্কন করেছিলেন। যা তার কাছে একটি স্কুল বলে মনে হয়েছিল।

লি জিংওয়েই অনলাইনে প্রকাশি ভিডিওতে আরও বলেন, এই হচ্ছে আমার বাড়ির চারপাশের এলাকার একটি মানচিত্র। আমি স্মৃতি থেকে এটা এঁকেছি। আমি এক শিশু যে তার বাড়িটিকে খুঁজে বের করতে চাইছে। ১৯৮৯ সালে টাক মাথাওয়ালা একজন প্রতিবেশী আমাকে হেনান নিয়ে গিয়েছিল। তখন আমার বয়স ছিল চার বছর।

প্রকাশিত ভিডিওটি হাজার হাজার বার শেয়ার হয়।

তার মায়ের সাথে পুনর্মিলনের আগে লি তার ডোউইন প্রোফাইলে লেখেন, তেত্রিশ বছরের অপেক্ষা, অসংখ্য বিনিদ্র রাত আর একটি হাতে আঁকা ম্যাপের ১৩ দিন পর অবশেষে আমার আবেগের মুক্তির মুহূর্ত সমাগত। আমার পরিবারের সঙ্গে পুনর্মিলনে যারা সাহায্য করেছেন তাদের সবাইকে ধন্যবাদ।

২০১৫ সালের চীনের এক পরিসংখ্যানে দেখা যায় প্রতি বছর সেখানে আনুমানিক ২০ হাজার শিশু অপহরণের শিকার হয়। ২০২১ সালে দেশটিতে এরকম হারিয়ে যাওয়া ছেলেদের সঙ্গে তাদের আসল বাবা-মায়ের পুনর্মিলনের অনেকগুলো ঘটনা ঘটেছে। গত বছরের জুলাই মাসেও শ্যানডং প্রদেশে গুও গ্যাংট্যাং-এর সঙ্গে তার অপহৃত ছেলের পুনর্মিলন হয় ২৪ বছর পর।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles