15.4 C
Toronto
শনিবার, আগস্ট ১৩, ২০২২

ওমিক্রনে রেকর্ডসংখ্যক রোগী দেখল যুক্তরাজ্য

- Advertisement -
এবার ওমিক্রন দাপটে যুক্তরাজ্যে একদিনে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখ ছাড়ালো

এবার ওমিক্রন দাপটে যুক্তরাজ্যে একদিনে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখ ছাড়ালো। এরইমধ্যে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ায় কর্মী সংকটে পড়েছে দেশটির বিভিন্ন খাত। আক্রান্তের নতুন রেকর্ডে উদ্বিগ্ন ব্রিটিশরা। করোনার নতুন ঢেউ ঠেকাতে চীনের শিয়ান শহরে ফের লকডাউন জারি করা হয়েছে।

এদিকে ওমিক্রন মোকাবিলায় বাইরে আবারো মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করেছে স্পেন সরকার। নতুন করে বিধিনিষেধ আরোপের ঘোষণা দিয়েছে বেলজিয়ামসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। ওমিক্রন ঠেকাতে ভ্যাকসিন কার্যক্রম জোরদার করেছে তুরস্ক, গ্রিসসহ অধিকাংশ রাষ্ট্র।

যুক্তরাজ্যে করোনা মহামারি শুরুর পর থেকে এ যাবৎকালে সবশেষ একদিনে সর্বোচ্চ এক লাখের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। প্রায় দুই বছর আগে করোনা মহামারি শুরু হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত কখনো যুক্তরাজ্যে এক দিনে এত রোগী শনাক্ত হয়নি।

সংকট মোকাবিলায় সবাইকে টিকার বুস্টার ডোজ নিতে আহ্বান জানিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। দেশটিতে এর মধ্যেই ৩০ লাখের বেশি মানুষ বুস্টার ডোজ নিয়েছেন। তবে আরো বেশি সংখ্যক মানুষকে বুস্টার ডোজের আওতায় আনতে জোর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ব্রিটিশ সরকার। বড়দিন ঘিরে ওমিক্রন তার সর্বোচ্চ ভয়াবহ রূপ দেখাবে বলে বিশেষজ্ঞরা সতর্ক করলেও কঠোর বিধিনিষেধ আরোপের বিপক্ষে বরিস জনসন।

ওমিক্রনের দাপটে আক্রান্তের নতুন রেকর্ড হয়েছে স্পেনেও। এ অবস্থায় আবারো কঠোর বিধিনিষেধ আরোপের ঘোষণা দিয়েছে দেশটির সরকার। এতদিন ঘরে বাইরে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক থাকলেও সবশেষ জুনে কিছুটা শিথিল করা হয়। তবে এখন থেকে আবারো বাইরেও মাস্ক পরার নির্দেশনা জারির ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানসেজ। এখন পর্যন্ত দেশটির ৮০ শতাংশ মানুষকে টিকার আওতায় আনা হয়েছে। তবে ওমিক্রন মোকাবিলায় বুস্টার ডোজের ওপর গুরুত্ব দিচ্ছে দেশটির সরকার।

বড়দিন উদযাপন করতে গিয়ে ওমিক্রন যেন ছড়িয়ে পড়তে না পারে সেজন্য সিনেমাহল, থিয়েটার ও পূর্বনির্ধারিত বিভিন্ন খেলার আয়োজন বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে বেলজিয়াম।

বেলজিয়ামের প্রধানমন্ত্রী আলেকজান্ডার ডি ক্রু বলেন, সব ধরনের অভ্যন্তরীণ অনুষ্ঠান বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সিনেমাহল, ক্রিস্টমাস ভিলেজ, বিভিন্ন অনুষ্ঠান, রাজনৈতিক সমাবেশ এগুলো বন্ধ থাকবে। শিক্ষার্থীরা যেন ছুটি কাটিয়ে আবারো স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারে সে লক্ষ্যেই এসব বিধিনিষেধ আরোপের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এদিকে, ওমিক্রন মোকাবিলায় জোর প্রস্তুতি নিচ্ছে গ্রিসও। এরইমধ্যে টিকাদান কর্মসূচি তড়ান্বিত করতে ভ্রাম্যমাণ টিকা কেন্দ্রের ব্যবস্থা করেছে দেশটির সরকার। ট্যাক্সি থেকে শুরু করে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষকে টিকাদানের আওতায় আনতেই এই উদ্যোগ।

কোভিড নিয়ন্ত্রণে নিজেদের উদ্ভাবিত তুর্কোভ্যাক টিকার অনুমোদন দিয়েছে তুরস্ক। যারা এখন পর্যন্ত টিকা নেয়নি তাদেরকে শিগগিরই ভ্যাকসিন নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ান।

করোনার উৎপত্তিস্থল চীনের অবস্থাও আবারো অবনতির দিকে। দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় শিয়ান শহরে লকডাউন জারি করতে বাধ্য হয়েছে প্রশাসন। প্রায় দেড় কোটি মানুষের বসবাস শহরটিতে। শুধুমাত্র জরুরি প্রয়োজনে দুইদিনে পরিবারের একজনকে নিত্যপ্রয়োজনীয় বাজার করার সুযোগ দেয়া হচ্ছে।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles