-4.6 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ২৭, ২০২২

জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজের জবানবন্দিতে চাঞ্চল্যকর তথ্য

- Advertisement -
জ্যাকুলিন

জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ কথিত প্রেমিক সুকেশ চন্দ্রশেখরের কাছ থেকে উপহার নিয়ে বিপাকে পড়েছেন। প্রতারণায় অভিযুক্ত ব্যবসায়ী সুকেশ চন্দ্রশেখরের বিরুদ্ধে করা ২০০ কোটি রুপি অর্থপাচার মামলায় জড়িয়েছে শ্রীলঙ্কান অভিনেত্রীর নাম।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবর- তদন্তকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) মানি লন্ডারিং মামলার তদন্ত করছে। সেই চার্জশিটে বলা হয়েছে- জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজের কাছে ব্যবসায়ী সুকেশ চন্দ্রশেখর নিজেকে পরিচয় দেন শেখর রত্ন ভেলা নামে। ২০২০ সালের ডিসেম্বরে জ্যাকুলিনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে প্রথম প্রচেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে ২০২১ সালের জানুয়ারিতে তার মেকআপ আর্টিস্ট শান মুত্তাথিলের মাধ্যমে যোগাযোগ করেন। সুকেশ নিজেকে সান টিভির মালিক এবং একটি রাজনৈতিক পরিবারের সদস্য হিসেবে পরিচয় দিয়েছিলেন।

- Advertisement -

জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ তদন্তকারী সংস্থার কাছে জবানবন্দিতে বলেছেন, তিনি সুকেশের কাছ থেকে দুই জোড়া হীরার কানের দুল, দুটি হার্মিসের ব্রেসলেট, তিনটি বার্কিন ব্যাগ, গুচির পোশাক, একটি বহু রঙের পাথরের ব্রেসলেট এবং লুই ভিটন জুতা উপহার পেয়েছেন।

অন্যদিকে সুকেশ চন্দ্রশেখর জানিয়েছেন, তিনি জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজকে প্রায় ১৫ জোড়া কানের দুল, পাঁচটি বার্কিন ব্যাগ এবং অন্যান্য বিলাসবহুল সামগ্রী দিয়েছেন।

সুকেশ দাবি করেছেন, অভিনেত্রীকে কারটিয়েরকে চুড়ি ও আংটি এবং টিফানি অ্যান্ড কোম্পানির একটি ব্রেসলেট রোলেক্স ঘড়ি ছাড়াও উপহার দিয়েছেন ৭ কোটি রুপি সমমূল্যের গয়না। পাশাপাশি তাকে এসপুলাহ নামের একটি ঘোড়া উপহার দিয়েছেন। তিনি জ্যাকুলিনকে একটি বিলাসবহুল গাড়ি উপহার দিয়েছিলেন। তবে জ্যাকুলিন দাবি করেছেন, তিনি গাড়ি ফেরত দিয়েছেন।

এ ছাড়া জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজের যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করা বোনকে দেড় লাখ মার্কিন ডলার ঋণ দেন সুকেশ। তাকে একটি বিএমডব্লিউ এক্স৫ গাড়ি উপহার দিয়েছেন সুকেশ চন্দ্রশেখর। এখানেই শেষ নয়, অভিনেত্রীর বাবা-মাকে একটি মাসেরটি এবং একটি পোর্শে গাড়ি উপহার দিয়েছেন সুকেশ। জ্যাকুলিনের ভাইকে ৫০ হাজার মার্কিন ডলার ঋণও দিয়েছেন।

এক ওষুধ কোম্পানির সাবেক কর্ণধার মালিক শিবেন্দ্র সিংহ এবং মালবেন্দ্র সিংহের পরিবারের সঙ্গে ২০০ কোটি রুপির প্রতারণা করেছিলেন সুকেশ এবং তার স্ত্রী লিনা পল। এ মামলায় গ্রেফতার হন এই দম্পতি।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles