19.3 C
Toronto
সোমবার, জুন ২৭, ২০২২

বাইকে লিফটের নামে তরুণীর শ্লীলতাহানি, এএসআই গ্রেফতার

- Advertisement -

 

বাইকে লিফটের নামে তরুণীর শ্লীলতাহানি, এএসআই গ্রেফতার - The Bengali Times
ছবি: সংগৃহীত।

বাস না পেয়ে পুলিশের কাছে লিফট চেয়েছিলেন ২৫ বছরের এক তরুণী। আর সেই লিফট চাওয়াই কাল হলো তার। পুলিশকে ভরসা করে প্রতিদানস্বরূপ শ্লীলতাহানির শিকার হবেন তা বুঝতে পারেননি তিনি। বাইপাস রোডের পাশেই পুলিশের হাতে নিগ্রহের শিকার হন ওই তরুণী। শ্লীলতাহানির অভিযোগে দুজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। যাদের একজন পুলিশের এএসআই। অপরজন সিভিক ভলান্টিয়ার। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজ এর প্রতিবেদনে জানা যায়, গ্রেফতার এএসআই সন্দীপ কুমার পাল বিধাননগর ট্রাফিক গার্ডের সদস্য। প্রতিবেদন অনুযায়ী, গ্রেফতারের পাশাপাশি সন্দীপকে সাসপেন্ডও করা হয়েছে। অপরদিকে গ্রেফতার সিভিক ভলান্টিয়ারের নাম অভিষেক মালাকার। শ্লীলতাহানির অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে প্রাথমিক তদন্তের পর তাকেও বরখাস্ত করা হয়েছে।

জানা গেছে, শনিবার (১১ ডিসেম্বর) রাত ১টার দিকে সল্টলেক করুণাময়ী বাসস্ট্যান্ডে এসে নামেন আসানসোলের বাসিন্দা ২৫ বছরের ওই তরুণী। নির্যাতনের শিকার ওই তরুণী জানিয়েছেন, বাস থেকে নামার পর স্ট্যান্ডে দাঁড়িয়েই অপেক্ষা করছিলেন তিনি।

ভুক্তভোগী বলেন, কলকাতায় তিনি যেখানে থাকেন, সেখানে যাওয়ার জন্য তখন কোনো গাড়ি পাচ্ছিলেন না। বেশ কিছুক্ষণ অপেক্ষার পর গাড়ি না পেয়ে শেষে এক পুলিশ কর্মীর কাছেই সাহায্য চান। ওই পুলিশ কর্মীর বাইকে করুণাময়ী থেকে উল্টোডাঙা পর্যন্ত লিফট দেয়ার অনুরোধ করেন তিনি। এরপর তাকে বাইকে করে নিয়ে যাওয়ার সময়ই তার শ্লীলতাহানি করে ২ অভিযুক্ত। বাইকটি চালাচ্ছিলেন এএসআই সন্দীপ। আর ওই তরুণীর পিছনে বসেছিল অভিযুক্ত সিভিক ভলান্টিয়ার অভিষেক মালাকার।

বাইপাসের ধারে আসানসোলের বাসিন্দা ওই তরুণীর শ্লীলতাহানি করা হয় বলে অভিযোগ। এই ঘটনায় তারপর বন্ধুর সাহায্যে প্রথমে কসবা থানায় অভিযোগ জানান ভুক্তভোগী তরুণী। এরপর সেখান থেকে অভিযোগটি বিধাননগর উত্তর থানায় পাঠানো হয়।

 

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles