28.4 C
Toronto
শনিবার, জুন ২৫, ২০২২

অনলাইন হেট স্পিচের বিরুদ্ধে দ্রুত পদক্ষেপের দাবি

- Advertisement -
অনলাইন হেট স্পিচের বিরুদ্ধে দ্রুত পদক্ষেপের দাবি - The Bengali Times
হেরিটেজ মন্ত্রী পাবলো রদ্রিগেজ

অনলাইন হেট স্পিচের বিরুদ্ধে প্রতিশ্রুতি রক্ষা করে দ্রুত এ ব্যাপারে পদক্ষেপ গ্রহণে ফেডারেল সরকারের প্রতি দাবি জানিয়েছে অ্যাডভোকেসি গ্রুপগুলোর একটি জোট। মঙ্গলবারে থ্রোন স্পিচেও বিষয়টি অন্তর্ভুক্তির দাবি জানিয়েছে তারা।

জোটের সদস্যরা বলছেন, আমরা চাই মন্ত্রীরা এ ধরনের আইনকে জরুরি বিষয় বলে বিবেচনা করুক। কারণ, শব্দ প্রয়োগ নিয়ে বিতর্ক এটিকে কয়েক বছর পিছিয়ে দিতে পারে।

অনলাইন হেট স্পিচকে নতুন পার্লামেন্ট অধিবেশনে অগ্রাধিকার দেওয়ার ব্যাপারে নির্বাচনী প্রচারণনার সময় প্রতিশ্রুতি দেয় লিবারেলরা। সোমবার থেকে নতুন পার্লামেন্টের অধিবেশন শুরু হয়েছে। সেপ্টেম্বরের ভোট উপলক্ষ্যে পার্লামেন্ট স্থগিত করার কিছুদিন আগে লিবারেল সরকার অনলাইনে তীব্র হেট স্পিচের বিরুদ্ধে একটি বিল আনে। বিল সি-৩৬ নামে পরিচিত বিলটি নিয়ে বিরোধী কনজার্ভেটিভ পার্টিসহ অন্যদের কাছ থেকে সমালোচনার মুখে পড়তে হয় সরকারকে। এর ফলে বাক স্বাধীনতা সংকুচিত হতে পারে অথবা এটি প্রয়োগ কঠিন হতে পারে বলে উদ্বেগ প্রকাশ করেন সমালোচকরা। পার্লামেন্ট বিলুপ্তির সময় বিলটির একই পরিণতি হয়।

কানাডিয়ান হেরিটেজ ও ডিপার্টমেন্ট অব জাস্টিসের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বিষয়টি নিয়ে তারা কাজ করছে এবং একাধিক বিলের মাধ্যমে এর একটা সমাধান হতে পারে।

হেরিটেজ ডিপার্টমেন্টের তথ্য অনুযায়ী, অনলাইন হেট স্পিচের বিষয়ে কিভাবে নতুন আইন করা যায় তা নিয়ে পরামর্শ করছে সরকার।

হেরিটেজ মন্ত্রী পাবলো রদ্রিগেজের মুখপাত্র জাস্টিন লেসাগে বলেন, সরকারের অনলাইন হেট স্পিচ বন্ধের যে চেষ্টা বিল সি-৩৬ তার গুরুত্বপূর্ণ অংশ। বিলটি নিজে নিজে কাজ করবে না। অনলাইন হেট স্পিচ বন্ধ করা সরকারের অন্যতম অগ্রাধিকার হয়েই থাকবে।

 

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles