19.7 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮, ২০২৪

পৃথিবীতে ফেরা হচ্ছে না সুনিতার, যা বলল নাসা

পৃথিবীতে ফেরা হচ্ছে না সুনিতার, যা বলল নাসা
সুনিতা উইলিয়ামস

মহাকাশযান বোয়িং স্টারলাইনারে চড়েই পৃথিবীতে ফেরার কথা ছিল সুনিতা উইলিয়ামসের। তবে সম্প্রতি বড় ধরনের ত্রুটি দেখা দিয়েছে এই মহাকাশযানে। যে কারণে মহাকাশেই আটকা পড়েছেন নাসার ইন্দো-মার্কিন নভোচারী সুনিতা উইলিয়ামস ও তার সঙ্গী বুচ উইলমোর।

জানা গেছে, তিন সপ্তাহ আগে বুচ উইলমোরকে সঙ্গী করে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন ভ্রমণে গিয়েছিলেন সুনিতা উইলিয়ামস। ২১ দিন পর ফেরার কথা ছিল। তবে ২৫ দিন হয়ে গেলেও এখনো পৃথিবীতে ফেরা হয়নি তাদের।

- Advertisement -

এ প্রসঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে মার্কিন মহাকাশ সংস্থা নাসা। জানিয়েছে, বোয়িং ক্যাপসুলের সমস্যা দেখা দেওয়ায় দীর্ঘ সময়ের জন্য মহাকাশে থাকতে হবে উভয় মহাকাশচারীকে।

২১ দিন পরেই ফেরার কথা প্রসঙ্গে নাসা জানিয়েছে, নাসার ইঞ্জিনিয়াররা বোয়িং ক্যাপসুলের সমস্যা সমাধানের জন্য কাজ করছেন। এখনও কিছু বিশেষ পরীক্ষা-নিরীক্ষা বাকি রয়েছে। সবকিছু সমাধান হলে, তবেই তাদের ফেরা নিয়ে সিদ্ধান্ত নেবে নাসা।

মহাকাশচারীরা সেখানে নিরাপদ না হওয়া পর্যন্ত নাসা ফেরার তারিখ নির্ধারণ করেনি। এ প্রসঙ্গে নাসার কমার্শিয়াল ক্রু প্রোগ্রাম ম্যানেজার স্টিভ স্টিচ বলেছেন, মহাকাশচারীদের ফিরিয়ে আনার জন্য কোনো তাড়াহুড়ো নেই।

নাসা স্টারলাইনারের মিশনের সর্বাধিক সময়কাল বাড়ানোর কথা ভাবছে জানিয়ে তিনি আরও বলেন, মিশনের সময়কাল ৪৫ দিন থেকে ৯০ দিন পর্যন্ত বাড়ানো যেতে পারে। অর্থাৎ সুনিতারা কবে নাগাদ ফিরবেন সে বিষয়ে নির্দিষ্ট কোনো তথ্য নেই।

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, স্টারলাইনার ওড়ার আগে রকেটে হিলিয়াম লিকেজের সমস্যা ধরা পড়েছিল। ফ্লাইট চলাকালীন আরও বেশ কিছু ত্রুটি লক্ষ্য করা গেছে। যেহেতু হিলিয়াম থ্রাস্টার জ্বালানি চাপ দিতে ব্যবহৃত হয়। তাই এটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ সমস্যা।

কিন্তু হঠাৎ কেনো এমন সমস্যার সৃষ্টি হলো, সেটাই বোঝার চেষ্টা করছে নাসা এবং বোয়িং। জানা গেছে, পাঁচটি ক্ষতিগ্রস্ত থ্রাস্টারের মধ্যে ইতোমধ্যেই চারটি মেরামত করা হয়েছে, বাকি একটি থ্রাস্টার পুনরুদ্ধারের আশা করা যাচ্ছে না।

সুনিতা উইলিয়ামস ও বুচ উইলমোর গত ৫ জুন নাসার ওই বোয়িং স্টারলাইনার ক্যাপসুলে চড়ে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে পাড়ি দিয়েছিলেন। বছরের পর বছর বিলম্ব ও বিপত্তির পর এটিই ছিল বোয়িং-এর প্রথম নভোচারী উৎক্ষেপণ।

নাসার বিবৃতি থেকে মনে করা হচ্ছে, এই মিশন আরও এক সপ্তাহের বেশি স্থায়ী হতে পারে। সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles