বাংলাদেশি পাকিস্তান সমর্থকের জার্সি খুলে নিলেন ক্ষুব্ধ টাইগার ফ্যানরা

- Advertisement -

 


এক বাংলাদেশি পাকিস্তান সমর্থকের জার্সি খুলে নিয়েছেন ক্ষুব্ধ টাইগার ফ্যানরা।

বাংলাদেশ-পাকিস্তানের ম্যাচে পাকিস্তানের জার্সি পরে খেলা দেখতে আসায় একজনের জার্সি খুলে নিয়েছেন কয়েকজন বাংলাদেশি ক্রিকেট সমর্থক। আজ বাংলাদেশ-পাকিস্তানের ৩য় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে পাকিস্তানের জার্সি পরে খেলা দেখতে এসেছিলেন এক বাংলাদেশি, পরে ক্ষুব্ধ দর্শকরা তার শরীর থেকে পাকিস্তানের জার্সি খুলে নেন।

- Advertisement -

সোমবার (২২ নভেম্বর) বাংলাদেশ-পাকিস্তান টি-টোয়েন্টি সিরিজের ৩য় ম্যাচ দেখতে আসা এক বাংলাদেশির শরীর থেকে পাকিস্তানের জার্সি খুলে নিয়েছেন ক্ষুব্ধ বাংলাদেশি দর্শকরা। এসময় মহান মুক্তিযুদ্ধের শহীদ ও বীরাঙ্গনাদের আত্মত্যাগের কথা স্মরণ করার মনে করিয়ে দেন সেই পাকিস্তান সমর্থককে। উল্লেখ্য, চলতি সিরিজের ১ম টি-টোয়েন্টির পর থেকেই এ ইস্যুতে চলছে আলোচনা-সমালোচনা। দেশপ্রেম-জাতীয়তাবাদের মত ইস্যু চলে এসেছে সামনে। স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠেছে, বাংলাদেশি ক্রিকেটপ্রেমিরা আসলে কতটা দেশপ্রেমিক তা নিয়েও।

এর আগে, বাংলাদেশের খেলার সময় কেউ সাথে পাকিস্তানের পতাকা আনলে বা পাকিস্তানের জার্সি পরে খেলা দেখতে আসলে তাদের প্রতিরোধের ঘোষণা দিয়েছিলো ‘পাকিস্তানী দালাল রুখবে তারুণ্য’ নামের একটি সংগঠন। আজকের ম্যাচের আগে তারা পাকিস্তান সমর্থকদের রুখতে স্টেডিয়ামের সামনে অবস্থানও নিয়েছিলেন।

- Advertisement -

স্টেডিয়ামের সামনে অবস্থানরতরা বলেছেন, স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তীতেও পাকিস্তানের সমর্থন করাটা কি জাতি হিসেবে আমাদের মানসিক দৈন্যতার পরিচয় দেয় না! ইতিহাসে নজিরবিহীন বর্বরতম গণহত্যা চালিয়েও ক্ষমা চায়নি যে পাকিস্তান সেই পাকিস্তানের পক্ষ যারা নেয়, তারা টিক্কা খান-নিয়াজীদের বংশধর।

- Advertisement -

উল্লেখ্য, চলতি সিরিজে বাংলাদেশিদের পাকিস্তান সমর্থন করা নিয়ে তুমুল আলোচনা চলছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে। পক্ষে-বিপক্ষে মতামত আর সমালোচনায় মুখর ক্রিকেটপ্রেমিদের নিউজফিড।

এর আগে, সিরিজের ১ম টি-টোয়েন্টির পর বাংলাদেশি পাকিস্তান সমর্থকদের উদ্দেশে সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মোর্ত্তজা বলেছিলেন, খেলার সাথে কোনো কিছু মেলানো যায় না এটা ঠিক। কিন্তু খেলাটা যখন আমাদের দেশে আর খেলছে আমাদের দেশ, সেখানে অন্য যে দেশই খেলুক না কেন, তাদের পতাকা তাদের দেশের মানুষ ছাড়া আমাদের দেশের মানুষ উড়াবে, এটা দেখে সত্যি কষ্ট লাগে।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles