32.2 C
Toronto
বুধবার, জুন ১৯, ২০২৪

‘আমার প্রেমে পড়ো না, তোমার হৃদয় ভেঙে দেব’

‘আমার প্রেমে পড়ো না, তোমার হৃদয় ভেঙে দেব’
শানিফা বাবু

শানিফা বাবু, সোশ্যাল মিডিয়া ইনফ্লুয়েন্সার। ইনস্টাগ্রাম ও টিকটকের মতো প্ল্যাটফর্মে তিনি বেশ জনপ্রিয় ছিলেন। গত শনিবার সকালে সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফুজাইরা শহরের একটি বহুতল ভবন থেকে পড়ে এই তরুণী নিহত হয়েছেন।

দুই সন্তানের জননী শানিফা ভারতীয় বংশোদ্ভূত। তার স্বামী একজন উদ্যোক্তা, আমিরাতে তার নিজের নির্মাণ ফার্ম রয়েছে। এই দম্পতি দক্ষিণ ভারতের কেরালা রাজ্যের বাসিন্দা। তবে শানিফার মৃত্যুর কারণ এখনো জানা যায়নি।

- Advertisement -

তবে মৃত্যুর একদিন আগে বৃহস্পতিবার টিকটকে একটি রিল পোস্ট করেন শানিফা। সেখানে তিনি বলেন, ‘আমার প্রেমে পড়ো না, আমি তোমার হৃদয় ভেঙে দেব।’

খালিজ টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শানিফা বাবু যে ভবনে থাকতেন তার ১৯ তলার অ্যাপার্টমেন্টের বারান্দা থেকে পড়ে যান। তবে তিনি আত্মহত্যা করেছেন নাকি ভবন থেকে পড়ে তার মৃত্যু হয়েছে সে বিষয়টি এখনো স্পষ্ট নয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পারিবারিক বন্ধু বলেন, আমরা জানি না কী ঘটেছে। ঘটনাটি সকাল ৯টার দিকে ঘটে। ওই সময় তার স্বামী, মা ও শিশুরা অ্যাপার্টমেন্টে ছিলেন।

শানিফা সংযুক্ত আরব আমিরাতে বেড়ে উঠেছেন এবং তার পুরো পরিবার এখানে থাকে। শনিবার তার মা দুবাই থেকে ফুজাইরাতে তার সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন।

শানিফা ইনস্টাগ্রাম ও টিকটকে খুব সক্রিয় ছিলেন। উভয় প্ল্যাটফর্মে ৯০ হাজারের বেশি ফলোয়ার রয়েছে। তিনি নিয়মিত মজার রিল এবং তার পরিবারের সঙ্গে তার জীবন সম্পর্কে পোস্ট করতেন।

এদিকে শানিফার মৃত্যুতে সোশ্যাল মিডিয়ায় শোকবার্তা ছড়িয়ে পড়লে নেটিজেনরা শোক প্রকাশ করেন। একজন ব্যবহারকারী লিখেছেন, আমি বিশ্বাস করতে পারছি না- আপনি আর এই পৃথিবীতে নেই শানু। অন্য একজন লিখেছেন: আপনি এমন একজন ছিলেন যার সঙ্গে আমি সোশ্যাল মিডিয়াতে বন্ধু হয়েছিলাম বাস্তব জীবনে কখনো দেখা না করে, শান্তিতে থাকুন।

শানিফার মৃত্যুর খবর পোস্ট করে তার স্বামী সানুজ বাবু লিখেছেন, অনুগ্রহ করে তার জন্য প্রার্থনা করুন।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles