18.5 C
Toronto
সোমবার, জুলাই ২২, ২০২৪

১৭ টি মোবাইল ফোন ব্যবহার করেন শাহরুখ!

১৭ টি মোবাইল ফোন ব্যবহার করেন শাহরুখ!
শাহ্রুখ খান

বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান। ক্যারিয়ারজুড়ে রয়েছে অসংখ্য সাফল্যে। শুধু সাফল্যের দিক থেকেই নয়, সম্পদের দিক থেকেও ভারতের সকল অভিনেতাকে ছাড়িয়ে তিনি। যদিও তার আজকের অবস্থান তৈরি করাটা সহজ কোনো বিষয় ছিল না।

বয়স ৫৮ হলেও এখনও ব্লকবাস্টার সিনেমা উপহার দেওয়ার ক্ষমতা রাখেন শাহরুখ। সম্প্রতি অভিনেতাকে নিয়ে মজার এক তথ্য শেয়ার করেছেন তার বন্ধু বলিউড প্রযোজক-অভিনেতা বিবেক ভাসওয়ানি।

- Advertisement -

শাহরুখ যখন বলিউড ক্যারিয়ার নিয়ে সংগ্রাম করছেন, তখন অনেক সহযোগিতা করেন বিবেক। এমনকী বিবেকের বাড়িতে শাহরুখের থাকার ব্যবস্থাও করেছিলেন। কিন্তু শাহরুখের সঙ্গে এখন তার যোগাযোগ নেই বললেই চলে! সম্প্রতি সিদ্ধার্থ কানানকে সাক্ষাৎকার দেন বিবেক। এ আলাপচারিতায় শাহরুখের এতগুলো মুঠোফোন ব্যবহারের তথ্য উঠে আসে।

আপনি ক্যানসারে আক্রান্ত হওয়ার পর কঠিন সময় পার করেছেন। তারপরও কেন শাহরুখ খানের সঙ্গে যোগাযোগ করেন নি? জবাবে বিবেক বলেন, ‘‘শাহরুখ খানের ১৭টি মুঠোফোন রয়েছে। তার মধ্যে একটি নাম্বার আমার কাছে আছে। ‘জওয়ান’ সিনেমা মুক্তির পর আমি শাহরুখকে ফোন করেছিলাম কিন্তু ধরেনি। আমি যখন গোসল করছিলাম, তখন শাহরুখ আমাকে ফোন করেছিল। আর আমি ধরতে পারিনি। শাহরুখের অনেক দায়িত্ব, সবসময় ভ্রমণের উপরেই থাকে। সে একটি সাম্রাজ্য চালায়। তাই আমিও বলি, ওকে।’’

শাহরুখের সঙ্গে কথা হয় না, দেখাও হয় না বিবেকের। তা জানিয়ে এই অভিনেতা বলেন, ‘আমরা কথা বলি না, দেখাও করি না। যখন দেখা হয়, তখন মনে হয় না আমাদের দেখা হওয়ার মাঝে এতগুলো বছর কেটে গিয়েছে। আমি একজন শিক্ষক। একটি স্কুলের ডিন। আমি লোকাল বাসে, ট্রেনে চলাফেরা করি। কিন্তু শাহরুখ একজন সুপারস্টার।’

স্ক্রিনস অ্যাক্টরস গিল্ড অ্যাওয়ার্ডে ‘ওপেনহেইমার’ ও ‘দ্য বিয়ার’র বাজিমাতস্ক্রিনস অ্যাক্টরস গিল্ড অ্যাওয়ার্ডে ‘ওপেনহেইমার’ ও ‘দ্য বিয়ার’র বাজিমাত

চার বছর আগে শাহরুখের জন্মদিনের পার্টিতে গিয়েছিলেন বিবেক। সেখানেই তাদের শেষ দেখা। সেই স্মৃতিচারণ করে বিবেক বলেন, ‘‘চার বছর আগে শাহরুখের জন্মদিনের পার্টিতে গিয়েছিলাম। আমাকে শাহরুখ বলেছিল, ‘স্যার, আসুন প্লিজ। চলুন আমার বাচ্চাদের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিই।’ সেই পার্টিতে আমরা খুব আনন্দ করেছিলাম।’’

শাহরুখকে সবশেষ দেখা গেছে ডাংকি সিনেমায়। এর আগে পাঠান ও জওয়ান-এ হাজার কোটি রুপির বেশি কালেকশন এনে দিয়েছিলেন কিং খান। ২০২৩ সাল তার জন্য অসাধারণ একটি সময় পার হয়েছে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles