1.1 C
Toronto
শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২৪

কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে নারী চাকরিপ্রার্থীকে কুপ্রস্তাব

কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে নারী চাকরিপ্রার্থীকে কুপ্রস্তাব

নারী চাকরিপ্রার্থীদের কাছে ইন্টারভিউতে ‘অন্যরকম সুবিধা’ চাওয়ার অভিযোগে এক সরকারি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। ভারতের মধ্যপ্রদেশের গোয়ালিয়রে একটি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘটনাটি ঘটেছে। এক নারী চাকরিপ্রার্থী পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন তাকে চাকরি দেওয়ার বিনিময়ে কুপ্রস্তাব দেন ইন্টারভিউয়ার। এই ঘটনায় তোলপাড় শুরু হয়েছে ওই এলাকায়।

- Advertisement -

সোমবার (১৫ জানুয়ারি) ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম আনন্দবাজারের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা যায়।

ওই প্রতিবেদনে জানা যায়, কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘টেকনিক্যাল অ্যাসিস্ট্যান্ট’ পদের জন্য বিজ্ঞপ্তি জারি হয়। সেই বিজ্ঞাপন দেখে অনেক চাকরিপ্রার্থী আবেদন করেছিলেন। গত ৩ জানুয়ারি ছিল ইন্টারভিউ। সেখানে ইন্টারভিউয়ার একাধিক নারী চাকরিপ্রার্থীকে কুপ্রস্তাব দেন বলে অভিযোগ। তিনি নাকি বলেন, তার আবেদনে সাড়া দিলে মোবাইলে চাকরি ‘কনফার্মেশন’-এর ম্যাসেজ চলে যাবে। কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বেরিয়ে এক চাকরিপ্রার্থী সোজা থানায় যান। তিনি মামলা দায়ের করেন ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে। তদন্ত শুরু করে গোয়ালিয়র ক্রাইম শাখার কর্মকর্তারা।

ওই মামলা প্রসঙ্গে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ঋষিকেশ মীনা সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, ‘গত ৩ জানুয়ারি চাকরির ইন্টারভিউ ছিল কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে। চাকরিপ্রার্থীদের আবেদনপত্র যাচাই-বাছাইয়ের পর একটি প্যানেল তৈরি হয়। তারপর ওই চাকরিপ্রার্থীদের ইন্টারভিউয়ের জন্য ডাকা হয়। আমরা ইতোমধ্যে অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে তথ্য সংগ্রহ করেছি।’

তিনি আরও জানান, প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, এক পদস্থ কর্মকর্তা, যিনি প্রযুক্তিগত বিষয়টি ভাল বোঝেন, তিনি ইন্টারভিউ নিচ্ছিলেন। নারী চাকরিপ্রার্থীর অভিযোগ তার বিরদ্ধেই। ইন্টারভিউয়ের পর ওই ব্যক্তি তিন নারী চাকরিপ্রার্থীর মোবাইলে ম্যাসেজ পাঠান। ম্যাসেজ লিখেন, তাকে ‘যৌন সুবিধা’ দিলে চাকরি পাইয়ে দেবেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরও জানান,ইতোমধ্যে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশের একটি দলকে পাঠানো হয়েছে। সংশ্লিষ্ট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকেও অভিযুক্তের বিরুদ্ধে উপযুক্ত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

সূত্র : দেশ রূপান্তর

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles