23.3 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, জুন ১৩, ২০২৪

ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনের যত প্রেমিক

ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনের যত প্রেমিক
অভিনেত্রী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন

বলিউডের অন্যতম আলোচিত অভিনেত্রী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন। রূপ এবং ক্যারিয়ার কারণে বরাবরই আলোচিত-সমালোচিত এই অভিনেত্রী। অভিনয় ক্ষমতা এবং বর্ণনা করে শেষ করা যাবে না। ৩৮ বছর বয়সেও দাপটের সঙ্গে নিজের অবস্থান অক্ষুণ্ণ রেখেছেন এই অভিনেত্রী। আর মনোগ্রাহী এবং হৃদয় হরণকারী ব্যক্তিত্ব কাছে হার মেনেছে হাজারো পুরুষের হৃদয়। এসবই গেলো ভক্তদের কথা কিন্তু এই অভিনেত্রীর রূপের জালে বাধা পড়েছে বলিউডের অনেক নামজাদা তারকা। শুধু তাই নয় জীবনে বেশ কয়েকবার প্রেমে পড়েছেন তিনি। সবাইকে ছেড়ে শেষ পর্যন্ত অভিষেকের বুকে মাথা রাখেন তিনি। তবে চলুন দেখে নেই ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনের এ জীবনের যত প্রেমিকদের তালিকা এবং এমন কিছু তথ্য যা আগে আপনি জানতেনই না!

রাজীব মুলচান্দানি মডেল রাজীব মুলচান্দানির সাথে ঐশ্বরিয়ার পরিচয় বলিউডে পদার্পণের পর। আর এই মিস ইন্ডিয়ার সঙ্গে মডেল রাজীবের দু’টি ফটোশুটেও অংশগ্রহণ করার সুযোগ চলে আসে। আর ফটোশুটের কাজ করতে করতে এক সময় তাদের মধ্যে গড়ে ওঠে প্রেমের সম্পর্ক। বেশ চুটিয়েই প্রেম করছিলেন দুজনে কিন্তু এরই মধ্যে ঐশ্বরিয়া শত্রুতে পরিণত হন আরেক বলিউড রূপসীর চোখে। রাজীব মুলচান্দানিকে পছন্দ করতেন বলিউড অভিনেত্রী মনীষা কৈরালাও। এই রাজীব মুলচান্দানির দখল নিয়ে দুই অভিনেত্রীর মধ্যে বেশ লড়াই হয়েছে বলেও দাবি করেন রাজীব। তবে শেষ পর্যন্ত ঐশ্বরিয়া-রাজীবের সম্পর্ক আর টেকেনি। তবে আপাত দৃষ্টিতে মিডিয়ার তৈরি সম্পর্ক এবং গুজবের মতোই মনে হলেও মনীষা-ঐশ্বরিয়া যুদ্ধটি কার অজানা নয়।

- Advertisement -

সালমান খান বলিউডের সবচেয়ে আলোচিত প্রেম কোনটি বলতে পারবেন? সালমান-ঐশ্বরিয়া কোথায় গেলেন,কী করলেন তা নিয়ে হয়েছে ভুরিভুরি খবর। ১৯৯৯ সালের সঞ্জয় লিলা বানসালি পরিচালিত ‘হাম দিল দে চুকে সানাম’ সিনেমায় অভিনয় সূত্রে একে অপরের কাছাকাছি চলে আসেন। কিন্তু এই সম্পর্কটিও বেশিদিন ধরে রাখতে পারেননি বদ মেজাজি সালমান। ঐশ্বরিয়ার সাথে দুর্ব্যবহারের কারণে সংবাদের শিরোনামেও পরিণত হয়েছেন বেশ কয়েকবার। সবশেষে ২০০২ সালে সালমানের সাথে সম্পর্কের ইতি টানেন ঐশ্বরিয়া।

বিবেক ওবেরয় সালমানের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর বিবেক ওবেরয়ের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান ঐশ্বরিয়া। ‘কিউ! হো গ্যায়া না’-ছবিতে কাজ করতে গিয়ে দু’জনের মধ্যে ভালবাসার সৃষ্টি হয়। ঐশ্বরিয়ার ৩০তম জন্মদিনে বিবেক ৩০ টি উপহার দেন ঐশ্বরিয়াকে। মিডিয়াতে এক সাক্ষাৎকারে বিবেক স্বীকার করেন যে, ঐশ্বরিয়ার সঙ্গে তার প্রেম চলছে। ব্যাস, সালমানের সাক্ষাৎ শত্রুতে পরিনত হন তিনি। বিভিন্ন যায়গায় বিভিন্নভাবে বিবেককে নাজেহাল করেন সালমান। আর মিডিয়ায় স্বীকার করায় বিবেকের উপর চরম ক্ষেপে যান ঐশ্বরিয়াও। আর সেখান থেকেই দু’জনের বিচ্ছেদ রচিত হয়।

অভিষেক বচ্চন বিয়ের আগে ঐশ্বরিয়ার শেষ প্রেম ছিল বলিউডের স্বনামধন্য অভিনেতা অমিতাভ বচ্চনের ছেলে অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে। এই প্রেমটি শেষ পর্যন্ত বিয়ে পর্যন্ত গড়ায় কারণ, সম্ভ্রান্ত বচ্চন পরিবারের বউ হতে কেনা চায়, তাই না? যদিও অমিতাভের ৬০তম জন্মদিনে অভিষেকের সঙ্গে অভিনেত্রী কারিশমা কাপুরের বাগদান সম্পন্ন হয়েছিল তবুও সে সম্পর্ক শেষ পর্যন্ত বিয়ে পর্যন্ত গড়ায়নি। জেপি দত্তের ‘উমরাও জান’ ছবিতে কাজ করতে গিয়ে অভিষেকের সঙ্গে প্রণয়র সম্পর্কে জড়ান ঐশ্বরিয়া। ২০০৭ সালের ২০ এপ্রিল তাদের শুভবিবাহ সম্পন্ন হয়।

সঞ্জয় লীলা বানসালি এই পরিচালকের নামতি দেখে ঘাবড়ে গেলেন তো! সঞ্জয় লীলা বানসালির মতো একজন পরিচালকু এই অভিনেত্রীর রূপের জালে ফেঁসে ছিলেন। সঞ্জয়ের বিশ্বস্ত সুত্রে জানা যায় এই পরিচালকের প্রতি সিনেমার কাহিনী অভিষেক বচ্চনের স্ত্রী ঐশ্বরিয়াকে মাথায় রেখে। শুধু তাই নয় সঞ্জয় তার প্রতিটি সিনেমা ঐশ্বরিয়াকে মাথায় রেখেই করেছেন। এবং এই পরিচালকের প্রতিটি সিনেমায় মুখ্য চরিত্রে এতদিন পর্যন্ত ঐশ্বরিয়াকেই দেখা গিয়েছে। এখানেই শেষ নয় ‘হাম দিল দে চুকে সানাম’ সিনেমায় ঐশ্বরিয়ার ঘাগরার লুক্তির কথা মনে আছে? আজ অবধি সঞ্জয় সেই ঐশ্বরিয়ার ঘাগরার মহনীয় রূপের জাল থেকে বেরতে পাড়েননি। আর তাই তো এখনো নিজের সিনেমায় ঐশ্বরিয়াকে নিতে না পারলেও দীপিকাকে ঐশ্বরিয়ার রূপে ঝেলে নিয়েছেন ঠিকই।

শাহরুখ খান বলিউডের সব থেকে বিশ্বস্ত স্বামীদের একজন মনে কড়া শাহরুখ খানকে। খুব অল্প বয়সে গৌরির সাথে প্রেম এবং বিয়ে। অতঃপর কোনরকম টানাপোড়ন ছাড়াই একসাথে অনেক বছর কাটিয়ে দেয়া। কিন্তু এই তারকার জীবনেও বাজতে শুরু কররেছিল ভাঙ্গনের সুর। আর এই বিচ্ছেদের কারন ছিলেন আর কেউ না ঐশ্বরিয়া রাই। কি চমকে উঠলেনতো! তবে আজ জানুন বলিউডের রূপসী রমণী ঐশ্বরিয়ার প্রেমের জালে শুধু সালমান নয় ধরা পড়েছিলেন শাহরুখ খান। শুধু তাই নয় শাহরুখ- সালমান দ্বন্দ্বের কারণ ছিল শাহরুখ-ঐশ্বরিয়ার প্রেম। ভারতের সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ‘জোশ’ সিনেমার শুটিং থেকে শাহরুখ ঐশ্বরিয়ার সম্পর্কের শুরু। অতঃপর এই জুটি একসাথে উপহার দেন সুপার হিট কিছু সিনেমা। দেবদাস এবং মহাব্বাতেন’ সিনেমায় অভিনয়ের পাশাপাশি চুটিয়ে প্রেম করছেন তাও আবার সালমানের চোখকে ফাকি দিয়ে। তবে ব্যাপারটি বেশিদিন অজানা থাকেনি সালমানের কাছে জানার পর একচোট মারামারিও হয়ে যায় এই দুই ভালো বন্ধুর মাঝে। তবে সব জানার পর গৌরি তার বাবার বাড়িতেও চলে যান অতঃপর আর কখন ঐশ্বরিয়ার সাথে অভিনয় করবেন না বলে বুঝিয়ে নিয়ে আসেন গৌরিকে

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles