‘হাইপ্রোফাইল’দের শুভেচ্ছাবার্তায় সিক্ত হচ্ছেন মালালা

- Advertisement -
মালালার বিয়ের টুইটটি রিটুইট করে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো

গতকালই বিয়ে করেছেন নোবেল শান্তি পুরস্কারজয়ী শিক্ষাকর্মী মালালা ইউসুফজাই। মঙ্গলবার নিজের টুইটে এ সংবাদ জানানোর পর থেকেই অভিন্দন বার্তা পাচ্ছেন চারদিন থেকেই। বাংলাদেশের তসলিমা নাসরিন এ বিয়ে নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করলেও মালালা পাশে পাচ্ছেন নামজাদা সব মুখকে।

মালালার বিয়ের টুইটটি রিটুইট করে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। টুইট বার্তায় তিনি বলেন, অভিনন্দন, মালালা এবং আসির! সোফি এবং আমি আশা করি আপনি আপনার বিশেষ দিনটি উপভোগ করেছেন।

- Advertisement -

শুভেচ্ছা জানিয়েছেন টেকজায়ান্ট অ্যাপলের প্রধান নির্বাহী টিম কুকও। তিনি লেখেন, আপনাকে এবং আসিরকে অভিনন্দন! নতুন জীবন শুরু করায় আপনাদের শুভেচ্ছা জানাই।

এদিকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সাবেক স্ত্রী জেমাইমা গোল্ডস্মিথ ও সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটনের মেয়ে চেলসি ক্লিনটনও অভিনন্দনে ভাসিয়েছেন মালালাকে।

- Advertisement -

তবে মালালার বিয়েতে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন প্রখ্যাত লেখিকা তসলিমা নাসরিন। একটি টুইট বার্তায় তিনি বলেন, আমি ভেবেছিলাম অক্সফোর্ডে লেখাপড়ার জন্য গিয়ে একজন ইংরেজ সুদর্শন প্রগতিশীল ব্যক্তিকে বিয়ে করবেন মালালা। আর ৩০ বছর পর বিয়ের কথা ভাববেন। কিন্তু…।

- Advertisement -

মালালা ইউসুফজাই ১৯৯৭ সালের ১২ জুলাই উত্তর-পশ্চিম পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশের সোয়াত জেলায় পশতুন জাতিগোষ্ঠীর এক সুন্নি মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। নারী শিক্ষা বিস্তারে কাজ করে যাওয়ায় ২০১২ সালে ১৫ বছর বয়সে তালেবানের হামলার শিকার হন মালালা। ২০১৪ সালের ১০ অক্টোবর শান্তিতে নোবেল পুরস্কার দেওয়া হয় তাকে। উল্লেখ্য, হামলার ঘটনার পর চিকিৎসার উদ্দেশ্য যুক্তরাজ্য গিয়ে সেখানেই সপরিবারে থিতু হয়েছেন মালালা।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles