20.9 C
Toronto
মঙ্গলবার, জুলাই ১৬, ২০২৪

রাফসানের সঙ্গে আমার সম্পর্ক শুধুই বন্ধুত্বের: জেফার

রাফসানের সঙ্গে আমার সম্পর্ক শুধুই বন্ধুত্বের: জেফার
জেফার রহমান ও রাফসান সাবাব

উপস্থাপক রাফসান সাবাব গত বৃহস্পতিবার (৯ নভেম্বর) ফেসবুক অ্যাকাউন্টে নিজের বিবাহবিচ্ছেদের খবর দেন। বিবাহ বিচ্ছেদ ঘোষণার পর রীতিমতো তোপের মুখে পড়েছেন রাফসান। নেটমাধ্যমে তাকে নিয়ে চলছে তুমুল নেতিবাচক চর্চা। প্রতারক বলে কটাক্ষ করছেন অনেকে। সানিয়া সুলতানা এশা ও রাফসানের সংসার ভাঙার পর থেকেই আলোচনায় উঠে এসেছে সংগীতশিল্পী জেফার রহমানের নাম।

সামাজিক মাধ্যমে দাবি করা হচ্ছে, জেফারের সঙ্গে সম্পর্কে ছিলেন রাফসান। যার কারণেই বিবাহ বিচ্ছেদের পথে হেঁটেছেন তিনি।

- Advertisement -

এই গুঞ্জন আরও বাড়িয়ে দেয় রাফসানের স্ত্রী এশার বক্তব্যে।

এমন আলোচনার মধ্যে জেফার গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমি সাধারণত এসব বিষয় এড়িয়ে চলার চেষ্টা করি। কিন্তু রাফসানকে নিয়ে আলোচনাটা অনেক দূর গড়িয়েছে। রাফসানের সঙ্গে সম্পর্কটা শুধুই বন্ধুত্বের । এমন বন্ধু যেমনটা ইন্ডাস্ট্রিতে অনেকেই আছে। আমরা একসঙ্গে শো করেছি। বিভিন্ন প্রোগ্রামে অংশগ্রহণ করেছি, ঘুরেছি, কিন্তু সেটা কেবলই দুজনে মিলে নয়। আমাদের আরও বন্ধুরাও সাথে ছিল।’

জেফার বলেন, ‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যা পড়বেন, তাই বিশ্বাস করবেন না। কেউ একজন এসে অভিযোগ তুললো, কোনো প্রমাণ ছাড়াই, এর মানে এই নয় যে সেটা বিশ্বাস করতে হবে।’

এর আগে সোমবার সানিয়া সুলতানা এশা বলেন, ডিভোর্স লেটারে নিজে স্বাক্ষর করে সেটার নোটিশ পাঠিয়েছে। বিচ্ছেদ কার্যকর হবার জন্য যে তিন মাস সময় লাগে সেটার সময়ও দেয়নি। তার আগেই ঘোষণা করে দেয়। তার হঠাৎ এমন ঘোষণায় আমি অবাক হয়েছি, রীতিমতো বিধ্বস্ত হয়ে গেছি। মানসিকভাবে স্বাভাবিক পর্যায়ে নেই, একদমই ভেঙে পড়েছি। আমি কখনোই বিচ্ছেদ চাইনি। এটা কখনোই মিউচুয়াল সিদ্ধান্ত নয়। আমি শেষ পর্যন্ত অনেক চেষ্টা করে গেছি আমার বিয়েটা টিকিয়ে রাখার জন্য। কিছু মেজর ইস্যুজ ছিল যেগুলোর জন্য আমি নিজেই হয়তো সব শেষ করে দিতে পারতাম।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles