23.3 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, জুন ১৩, ২০২৪

আগস্টে মূল্যস্ফীতি বেড়েছে

আগস্টে মূল্যস্ফীতি বেড়েছে
ব্যাংক অব কানাডা আবারও সুদের হার বৃদ্ধির দরজা খোলা রেখেছে কারণ মূল্যস্ফীতির হার কাক্সিক্ষত ২ শতাংশের লক্ষ্যের মধ্যে আসতে আরও সময় লাগবে বলে মনে করছে তারা

আগস্টে কানাডার মূল্যস্ফীতি বেড়ে ৪ শতাংশে উন্নীত হয়েছে বলে পূর্বাভাস দিয়েছেন অর্থনীতিবিদরা। আগের মাসের যা বিপরীত চিত্র। গ্যাসোলিনের মূল্য বৃদ্ধি মূল্যস্ফীতি বাড়াতে ভূমিকা রেখেছে।

স্ট্যাটিস্টিকস কানাডার আগস্টের ভোক্তা মূল্যসূচক মঙ্গলবার প্রকাশ করার কথা। এতে টানা দ্বিতীয় মাসের মতো মূল্যস্ফীতি বেড়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

- Advertisement -

জুনে কানাডার মূল্যস্ফীতি ২ দশমিক ৮ শতাংশে নেমে এসেছিল। এই নিয়ে ২০২১ সালের পর প্রথমবারের মতো মূল্যস্ফীতি ব্যাংক অব কানাডার ৩ শতাংশ রেঞ্জের যে লক্ষ্যমাত্রা তার মধ্যে চলে আসে। তবে এই সাফল্য বেশিদিন স্থায়ী হয়নি। আগামী মাসে মূল্যস্ফীতি আরও বাড়তে পারে।
ডেজারডিনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সামস্টিক কৌশলের প্রধান রয়েস মেন্ডেজ বলেন, তার ধারণা আগস্টে সার্বিক মূল্যস্ফীতি ৪ শতাংশে উন্নীত হয়েছে। জুলাইয়ে যেখানে মূল্যস্ফীতির হার ছিল ৩ দশমিক ৩ শতাংশ। আমাদের ধারণা, গ্যাসোলিনের মূল্যবৃদ্ধির কারণে কানাডিয়ানদের পকেটের ওপর আবারও চাপ তৈরি হবে।

পুরো গ্রীষ্মজুড়ে তেলের দাম বাড়তে থাকে। চলতি সপ্তাহে প্রতি ব্যারেল জ¦ালানি তেলের দাম ৯০ মার্কিন ডলার ছাড়িয়ে যায়। যদিও জুনে প্রতি ব্যারেল অপরিশোধিত জ¦ালানি তেলের দাম ছিল ৭০ মার্কিন ডলারের মধ্যে।

এদিকে টিডির অর্থনীতিবিদরা মূল্যস্ফীতির হার আগস্টে ৩ দশমিক ৮ শতাংশে পৌঁছেছে বলে মনে করছেন। টিডির অর্থনীতি বিষয়ক নির্বাহী পরিচালক জেমস অরল্যান্ডো বলেন, আগস্টে মূল্যস্ফীতির হার বৃদ্ধিতে আরেকটি বিষয় কাজ করে থাকতে পারে এবং তা হলো এক বছর আগে মূল্যস্ফীতির হার কমতে শুরু করেছিল। গত বছর আমরা মূল্যস্ফীতির হার কমতে দেখেছিলাম।

এ অবস্থায় ব্যাংক অব কানাডা আবারও সুদের হার বৃদ্ধির দরজা খোলা রেখেছে। কারণ, মূল্যস্ফীতির হার কাক্সিক্ষত ২ শতাংশের লক্ষ্যের মধ্যে আসতে আরও সময় লাগবে বলে মনে করছে তারা। কিন্তু অর্থনীতিবিদরা বলছেন, অর্থনীতির সাম্প্রতিক নিস্তেজতা সুদের হার না বাড়ানোর কথা চিন্তা করতে রাজি করাতে পারে।

এ মাসের গোড়ার দিকে ব্যাংক অব কানাডা নীতিনির্ধারণী সুদের ৫ শতাংশে অপরিবর্তিত রাখার সিদ্ধান্ত নেয়। আগের দুই বৈঠকে সুদের হার বৃদ্ধির পর এই সিদ্ধান্তে পৌঁছায় তারা। দ্বিতীয় প্রান্তিকে অর্থনীতি সংকুচিত হওয়ার উপাত্ত সামনে আসার পর সুদের হার অপরিবর্তিত রাখার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles