১০ বছর হাসতে দেখিনি কখনও মাকে, মুখ খুললেন সারা

- Advertisement -
ছবি সংগ্রহ

বলিউডের বেশ কিছু সম্পর্ক খুব ভালভাবে শুরু হলেও শেষ পর্যন্ত তা স্থায়ী হয়নি। নবাব পরিবারের দশম নবাব সাইফ আলি খান ও অভিনেত্রী অমৃতা সিংয়ের সম্পর্ক প্রেম দিয়ে শুরু হয়েছিল। তাদের দুই সন্তান সারা আলি খান ও ইব্রাহিম আলি খান রয়েছে, তবে বিয়ের ১৩ বছর পর সেই প্রেমের সংসার ভেঙে যায়।

অমৃতা সিং দুই বাচ্চাকে নিয়ে আলাদা থাকতে শুরু করেন। তারপরে সাইফ আলি খান বিয়ে করেন কারিনা কাপুর খানকে। এই ঘরেই দুই সন্তানের বাবা সাইফ। তবে বাবা হিসেবে প্রথম সংসারের সন্তানদের ভরন-পোষণের সব দায়িত্বও পালন করেন তিনি। এরপরও দুঃখবোধ রয়েছে সারা আলি খান ও ইব্রাহিম আলি খানের।

- Advertisement -

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বাবা-মায়ের ডিভোর্স নিয়ে মুখ খুলেছেন সারা। তার কথায়, মাত্র ৯ বছর বয়সেই বুঝে গিয়েছিলেন, একই ঘরে থাকা দু’জন মানুষ (বাবা-মা) একে অপরের সঙ্গে সুখী ছিল না। দু’জনে আলাদা ঘরে থাকতে শুরু করার পরই, খুশি থাকতে শুরু করেন। তবে বিগত ১০ বছর ধরে অভিনেত্রী তার মা-কে খুশি দেখেননি।
উল্লেখ্য, ১৯৯১ সালে বয়সে ১২ বছরের বড় অমৃতা সিংকে একপ্রকার পরিবারের অমতে গিয়েই বিয়ে করেছিলেন সাইফ আলি খান। সেই সংসারে ১৯৯৫ সালে জন্ম হয় তাদের মেয়ে সারার, ২০০১ সালে জন্ম হয় ইব্রাহিম আলি খানের। পরে ২০০৪ সালে সাইফ-অমৃতার বিচ্ছেদ হয়। তাদের বিচ্ছেদের ১৭ বছর পার হয়ে গেছে।

সূত্র : জি নিউজ।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles