26.4 C
Toronto
মঙ্গলবার, মে ২১, ২০২৪

শাকিবের প্রতি যে অন্যায় করেছি, তা আমি শুধরাতে চাই: অপু বিশ্বাস

শাকিবের প্রতি যে অন্যায় করেছি, তা আমি শুধরাতে চাই: অপু বিশ্বাস
<br >ছবি সংগৃহীত

সন্তান আব্রাম খান জয়কে নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ঘুরে দেশে ফিরেছেন চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস। ২ জুলাই থেকে সেখানে ছিলেন নায়ক শাকিব খান। যুক্তরাষ্ট্রে একসঙ্গে ঘুরতে দেখা গেছে শাকিব ও অপুকে। সন্তানকে নিয়ে ঘোরাঘুরির ব্যাপারটি তাদের ভক্তরা ইতিবাচকভাবে দেখছেন। এ বিষয়ে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন অপু বিশ্বাস।

তিনি বলেন, আমার সঙ্গে শাকিবের দূরত্বটা মোটেও কাম্য ছিল না। এ জন্য শাকিবকে দায়ীও করব না। ওই সময়টায় আমি অপ্রস্তুত ছিলাম। ওই ধরনের অপ্রস্তুত পরিস্থিতিতে যে কোনো কিছু মোকাবিলা করা আমার জন্য অনেক টাফ হয়ে গিয়েছিল। তাই আমি অনেক কিছুই বুঝে ওঠতেও পারিনি। অনেক উলটাপালটা কথা বলেছি। পরে আমাকে যে এ ধরনের পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হবে, তা কখনই ভাবিনি। তাই হয়তো ঘরের কথা পরের মতো করে বলে ফেলেছি। একটা সময় পর এসব ভাবতে ভাবতে নিজের প্রতি নিজে অনেক কষ্ট পেয়েছি। লজ্জিতও হয়েছি। আমি আমার শ্বশুর-শাশুড়িকে নিয়েও কোনো ভালো উক্তি তখন করিনি।

- Advertisement -

অপু বিশ্বাস জানান, শাকিব খান ও তার পরিবারকে নিয়ে প্রকাশ্যে এভাবে কথা বলা ঠিক হয়নি বুঝতে পেরেই শাকিবের মা–বাবার সঙ্গে দেখা করে ক্ষমা চেয়েছেন।

অপুর দাবি, একটা সময় এসে যখন তাদের (শাকিব খানের মা–বাবা) কাছে গিয়ে আমার ভুল স্বীকার করেছি—তারা বলেছেন, তোমরা আমাদের সন্তান, আর সন্তানদের কখনো ভুল হয় না। শাকিবের মা–বাবার কাছে ক্ষমা চেয়েছি।’

তিনি বলেন, একজন তারকা শিল্পী হয়ে জনসমক্ষে এত কথা বলেছেন, তা ঠিক হয়নি বলেও মনে হয়েছে তার। আমার উপলব্ধি হয়েছে, ব্যক্তি অপু বিশ্বাসের চেয়ে আমি একজন নায়িকাও বটে। তাই আমাদের কথা দ্রুত ছড়ায়। ওই সময়টায় খেই হারিয়ে অনেক উলটাপালটা কথা বলেছি, যা মোটেও ঠিক ছিল না। ওসব কিছু ভেবে আমি ভীষণভাবে লজ্জিত, অনুতপ্ত। আমি মনে করি, মানুষ মাত্রই ভুল হয়, মানুষের বাইরে আমি নই। তাই আমিও ভুলের ঊর্ধ্বে নই। এখন আমার মনে হয়েছে, আমার যেসব ভুল হয়েছে, শাকিবের প্রতি যে অন্যায় আমি করেছি, তার পরিবারের প্রতি যে অপবাদ দিয়েছি—তা আমি শুধরাতে চাই। শুধরাতে চাই বলে এখন সত্যি কথা বলছি— এখানে অন্য কোনো উদ্দেশ্য নেই।

অপু বলেন, এটি সত্যি। আমি সত্যি কথা লিখেছি। সে জন্য তা নিজের ফেসবুকে লিখেছি। আবারও বলছি, মা–বাবার পর শাকিব খান আমার ক্যারিয়ারে বেশি অবদান রেখেছেন। তার সঙ্গে সবচেয়ে বেশি সিনেমায় জুটি হয়েছি। অনেক সিনেমা করেছি একসঙ্গে। অনেক সুপারহিট সিনেমা আছে আমাদের। এখনো দর্শকরা সেসব সিনেমার কথা বলে, প্রশংসা করে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles