17.2 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, মে ২৩, ২০২৪

‘ছেলে হয়ে জন্মালে টেনিস খেলতাম না’

‘ছেলে হয়ে জন্মালে টেনিস খেলতাম না’
সানিয়া মির্জা

টেনিসে এশিয়ার নাম্বার ওয়ান তারকা সানিয়া মির্জা। ছয়টি গ্র্যান্ড স্লাম আর ৪১টি ডাবলসসহ অসংখ্য সাফল্যে মোড়া তার ক্যারিয়ার।

তারপরও হঠাৎ করেই সম্প্রতি অবসর নেন সানিয়া মির্জা। সম্প্রতি ক্যারিয়ারের ইতি টানা সানিয়া মির্জা সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে আলাপে বলেছেন, ছেলে হয়ে জন্মালে টেনিস খেলতাম না।

- Advertisement -

এক সাক্ষাৎকারে সানিয়া বলেন, সত্যি কথা বলতে, আমি যদি মেয়ে না হয়ে ছেলে হয়ে জন্মাতাম, তাহলে হয়তো ক্রিকেটই খেলতাম। কারণ ক্রিকেট খেলাটা অন্য পাঁচটা খেলার থেকে আলাদা।

একটা সময়ে ভারতের আয়ের অন্যতম মাধ্যম ছিল সিনেমা। বর্তমানে সিনেমার চেয়েও তারা বেশি আয় করছে ক্রিকেট থেকে। ক্রিকেট তাদের জাতীয় খেলা। শুধু এশিয়াই নয়! ক্রিকেট বিশ্বের সেরা দলগুলোর মধ্যে অন্যতম পজিশনে রয়েছে ভারত।

আর এ কারণেই সানিয়া মির্জা বলেছেন, ছেলে হয়ে জন্মালে তিনি ক্রিকেটকেই ক্যারিয়ার হিসেবে বেছে নিতেন।

সানিয়া মির্জা নিজে ক্রিকেটার হতে না পারলেও স্বামী হিসেবে বেছে নিয়েছেন পাকিস্তান ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক শোয়েব মালিককে।

সানিয়া বলেন, তবে আমি মেয়ে হওয়ার জন্যই হয়তো মনে হতো ক্রিকেটটা আমাদের খেলা নয়। এই চিন্তাধারাটা অবশ্য অনেক আগের। ত্রিশ বছর আগে সাধারণ ভারতীয়দের মনোভাব এমনই ছিল কিন্তু এখন তা বদলেছে। এখন আমাদের মেয়েরাও ভালো ক্রিকেট খেলছে। ক্রিকেটেও মেয়েদের জন্য এখন ভালো ক্যারিয়ার আছে।

নিজের অবসর নিয়ে সানিয়া বলেন, আমি মাথা উঁচু করে টেনিসকে বিদায় জানাতে চেয়েছিলাম। তাই মনে হলো, এটাই অবসরের ঠিক সময়। জানি এখনো আমার বড় ম্যাচ জেতার ক্ষমতা রয়েছে। সেই আত্মবিশ্বাসেই শেষ গ্র্যান্ড স্লামে খেলেছি। আসলে আমি ওই পর্যায়ে খেলতে পছন্দ করি। এখনো কেন খেলা ছাড়ছি না, এটা শোনার থেকে ‘কেন খেলা ছাড়লেন’ শোনা আমার কাছে অনেক বেশি তৃপ্তিদায়ক।

আমি কঠিন থেকে কঠিনতর চ্যালেঞ্জ নিতে পছন্দ করেছি। তার জন্য পরিশ্রম, আত্মত্যাগ কম কিছু করতে হয়নি। সেই তাগিদটায় ঘাটতি আসুক চাইনি। তাই মনে হলো, এটাই খেলা ছাড়ার আদর্শ সময়।

টেনিস ক্যারিয়ারের নিজের আদর্শ কে ছিলেন? এমন প্রশ্নের জবাবে সানিয়া বলেন, আমার বেড়ে ওঠার সময় জার্মান কিংবদন্তি স্টেফিগ্রাফের নাম সবার মুখে মুখে ছিল। হয়তো ওকে আদর্শ ভেবে নিয়েছিলাম। আমাদের দেশে সেই সময় ভারতীয় দৌড়বিদ পি টি ঊষাকে নিয়েও প্রচুর আগ্রহ ছিল। পুরো উপমহাদেশে সাধারণ মানুষের মুখে মুখে ঊষার নাম ছিল। সে সময় ভারতের কোনো মেয়ে অ্যাথলিট হতে চাইলে ঊষাকে সামনে রেখেই নিজেদের উদ্বুদ্ধ করত।

টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা অবসরে ক্রিকেটকে ক্যারিয়ার হিসেবে বেছে নিয়েছেন। সর্বশেষ নারী আইপিএলে তিনি রয়েল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর মেন্টরের দায়িত্ব পালন করেছেন।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles