19.7 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮, ২০২৪

অভিনেত্রীকে ক্রিকেটারের ‘শ্লীলতাহানি’, যা জানাল পুলিশ

অভিনেত্রীকে ক্রিকেটারের ‘শ্লীলতাহানি’, যা জানাল পুলিশ
অভিনেত্রী স্বপ্না গিল ও পৃথ্বী শ ছবি সংগৃহীত

শ্লীলতাহানি ও মারধরের অভিযোগ ভারতীয় ক্রিকেটার পৃথ্বী শ’র বিরুদ্ধে ১০ ধারায় মামলা করেছিলেন দেশটির বেনামি অভিনেত্রী স্বপ্না গিল। তবে তদন্ত শেষে সেই সব অভিযোগ অসত্য বলে জানিয়েছে মুম্বাই পুলিশ। খবর ইন্ডিয়া টুডের।

পুলিশের দেওয়া রিপোর্টে বলা হয়, স্বপ্নার অভিযোগ অনুযায়ী পৃথ্বীর বিরুদ্ধে তদন্ত করে কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। যে রেস্তরাঁয় এই ঘটনা ঘটেছিল সেখানকার কর্মীদের বয়ান রেকর্ড করেছে পুলিশ। কর্মীরা জানিয়েছেন, ঘটনার দিন পৃথ্বী শুধুমাত্র স্বপ্না ও তার বন্ধুদের ছবি তুলতে নিষেধ করেছিলেন। কোনো রকম খারাপ কথা বলেননি। উল্টো স্বপ্না ও তার বন্ধুরা অনেক খারাপ কথা বলেন পৃথ্বীকে। এমনকি তাকে হুমকিও দেন বলে জানিয়েছেন কর্মীরা। পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনাস্থলে উপস্থিত রেস্তরাঁ কর্মীদের বয়ান থেকে স্পষ্ট যে পৃথ্বী নির্দোষ।

- Advertisement -

এর আগে এ বছরের ১৫ ফেব্রুয়ারি রাতে এক বিলাসবহুল রেস্তরাঁয় জনাকয়েক বন্ধুর সঙ্গে নৈশভোজে গিয়েছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটার পৃথ্বী। ক্রিকেটারের সঙ্গে সেলফির আবদার করেন বেশ কয়েকজন ভক্ত। তাদের মধ্যে কয়েক জনের আবদার মেটান পৃথ্বী। একের পর এক আবদার আসতে থাকায় কিছুটা বিরক্ত হয়ে সেলফি তুলতে অস্বীকার করেন তিনি।

পরে রেস্তরাঁর ম্যানেজার সেই ভক্তদের বাইরে বের করে দিলে রাগের বশে বেসবল ব্যাট দিয়ে মেরে পৃথ্বীর গাড়ির কাচ ভেঙে দেন তারা। ক্রিকেটারের এক বন্ধু অভিযোগ জানালে সেখানেই উঠে আসে ভোজপুরী অভিনেত্রী স্বপ্নার নাম। তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

স্বপ্না গিল পৃথ্বী’র বিরুদ্ধে ‘নির্যাতন’-এর অভিযোগ করেন । আদালতে তিনি দাবি করেন, ‘আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ আনা হয়েছে, তা সত্যি নয়। বরং পৃথ্বীই আমার বুকে ও হাতে মেরেছেন।’

পুলিশি হেফাজতের মেয়াদ শেষ হওয়ার পর প্রথমে ১৪ দিনের বিচার বিভাগীয় হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয় ভোজপুরী অভিনেত্রীকে। পৃথ্বীকে শারীরিক ভাবে হেনস্থার ঘটনায় আরও তিন জনকেও ১৪ দিন বিচার বিভাগীয় হেফাজতের নির্দেশ দেন মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক।

প্রথমে তাদের জামিনের যে আবেদন করা হয়, তাতে কিছু অসঙ্গতি থাকায় খারিজ করে দেন বিচারক। পরে আবার জামিনের জন্য আবেদন করেন স্বপ্নার আইনজীবী। তার মক্কেলের বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেন তিনি। দু’পক্ষের আইনজীবীদের সওয়াল শোনার পর জামিন মঞ্জুর করেন বিচারক। জামিন পান অভিনেত্রী। তার পরেই পৃথ্বীর বিরুদ্ধে ১০ ধারায় মামলা দায়ের করেন তিনি। সেই অভিযোগেরই তদন্ত রিপোর্ট জমা দিয়েছে পুলিশ।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles