24.5 C
Toronto
শুক্রবার, জুলাই ১৯, ২০২৪

কমতে পারে খাদ্য মূল্যস্ফীতি

কমতে পারে খাদ্য মূল্যস্ফীতি
এ সপ্তাহে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে মূল্যস্ফীতির প্রধান চালক বৈশি^ক সরবরাহ ব্যবস্থা ও পরিবহন ব্যয় বৃদ্ধি কমে এসেছে তবে মূল্য শিগগিরই কমছে না

মুদিপণ্যের ঝুড়িটি ভরতে যে ব্যয় তা শেষ পর্যন্ত স্থিতিশীল হচ্ছে বলে নতুন এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে আরবিসি। তবে খাদ্যপণ্যের দাম মহামারি-পূর্ববর্তী অবস্থায় ফিরবে না বলেই বিশ^াস তাদের।
এ সপ্তাহে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মূল্যস্ফীতির প্রধান চালক বৈশি^ক সরবরাহ ব্যবস্থা ও পরিবহন ব্যয় বৃদ্ধি কমে এসেছে। তবে মূল্য শিগগিরই কমছে না।

আরবিসি বলেছে, গত দুই বছরের তুলনায় খাবারের দাম ১৮ শতাংশ বেড়েছে। বর্ধিত সুদের হারের মধ্যে এটি কানাডিয়ান পরিবারগুলোর ওপর চাপ তৈরি করেছে। সরবরাহ ব্যবস্থার সমস্যা, গম ও ভোজ্যতেলের মতো কাঁচা খাদ্যপণ্যের দামে অস্থিতিশীলতা কমে এসেছে। সেই সঙ্গে প্রধানত ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে ভূরাজনীতি নিয়ে যে উদ্বেগ তাও অনেকটা প্রশমিত হয়েছে।

- Advertisement -

কিন্তু আরবিসি এই বলে সতর্ক করে দিয়েছে যে, খরা ও অন্যান্য চরম আবহাওয়া পরিস্থিতি প্রায় নিয়মিত ঘটনা হয়ে উঠছে।, যা কৃষি উৎপাদন লক্ষণীয় পরিমাণে কমিয়ে দিতে পারে। এর প্রভাব পড়বে খাদ্য সরবরাহ ব্যবস্থার ওপর।

প্রতিবেদনে কানাডা ও যুক্তরাষ্ট্রে গবাদি পশুর পাল কমে যাওয়ার বিষয়টিও তুলে ধরা হয়েছে। কারণ, সাম্প্রতিক খরা মাংস উৎপাদনকারী খামারীদের অনেককেই গবাদিপশু বিক্রি করে দিতে বা জবাই করে ফেলতে বাধ্য করেছে। শ্রমিক সংকটের বিষয়টিও আরবিসি তাদের প্রতিবেদনে তুলে এনেছে। তাদের মতে, বয়স্ক জনগণ ও মজুরি বৃদ্ধি খাদ্যের মূল্য বাড়াতে ভূমিকা রাখবে। ২০২১ সালের গোড়ার দিক থেকেই কানাডাডিয়ানদের কম খাবারের জন্য বেশি মূল্য পরিশোধ করতে হচ্ছে, যা দামি পণ্যের চাহিদা কমিয়ে দিয়েছে।

This article was written by Sohely Ahmed Sweety as part of the LJI.

- Advertisement -
পূর্ববর্তী খবর
পরবর্তী খবর

Related Articles

Latest Articles