ভ্যাকসিন নেবেন কি নেবেন না তা জনগণের একান্ত ব্যক্তিগত পছন্দ

- Advertisement -

এরিন ও’টুল বলেন, ভ্যাকসিন নেবেন কি নেবেন না তা জনগণের একান্ত ব্যক্তিগত পছন্দ

হাউজ অব কমন্সের কার্যক্রম কিভাবে শুরু করা উচিত এবং কার্যক্রম শুরু হলে কিসে কিসে প্রাধান্য দিতে হবে সে ব্যাপারে বুধবারও বিরোধী দলীয় নেতাদের সঙ্গে পরামর্শ করেছেন প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। পাশাপাশি এরিন ও’টুল, জাগমিত সিং ও গ্রিন পার্টির সংসদীয় নেতা এলিজাবেথ মের সঙ্গেও টেলিফোনে আলোচনা করার কথা রয়েছে তার। ব্লক কুইবেকোয়িস নেতা আইভস-ফ্রাসোয়াঁ ব্লাশের সঙ্গে বুধবার সংসদীয় অধিবেশন শুরুর বিষয়ে নিজের ধারণা বিনিময় করেন তিনি।

ভ্যাকসিনেশন অবস্থার ভিত্তিতে এমপিদের কারা হাউজ অব কমন্সে প্রবেশের অনুমতি পাবেন সে সংক্রান্ত প্রস্তাব তৈরি করেছে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে গঠিত একটি কমিটি। তবে কমিটির সিদ্ধান্তের সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করেছে কনজার্ভেটিভ পার্টি।

- Advertisement -

অভ্যন্তরীণ অর্থনীতি বিষয়ক সর্বদলীয় বোর্ড বলেছে, যারা উভয় ডোজ ভ্যাকসিন নিয়েছেন কেবল তাদেরকেই হাউজ অব কমন্সের প্রাঙ্গণে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া উচিত। পুরোপুরি ভ্যাকসিনেটেড এমপিদেরই কেবল তাদের আসনে বসার সুযোগ থাকা উচিত বলে মত দিয়েছে লিবারেল, এনডিপি ও ব্লক কুইবেকোয়িস। সম্প্রতি অনুষ্ঠিত জাতীয় নির্বাচনের প্রার্থীদের ক্ষেত্রেও একই নিয়ম চালু করেছিল তারা।

তবে এর সঙ্গে একমত নন কনজার্ভেটিভ নেতা এরিন ও’টুল। তার মতে, ভ্যাকসিন নেবেন কি নেবেন না তা জনগণের একান্ত ব্যক্তিগত পছন্দ। আর কনজার্ভেটিভ হুইপ ব্লেক রিচার্ডস বলেন, র‌্যাপিড কোভিড-১৯ পরীক্ষায় কেউ নেগেটিভ হলে তা কর্মক্ষেত্রের সুরক্ষার জন্য যথেষ্ট।

- Advertisement -

হাউজ অব কমন্সের জন্য ভ্যাকসিনেশন নীতি বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য গঠিত আট সদস্যের কমিটিতে কনজার্ভেটিভ পার্টির যে দুজন প্রতিনিধি রয়েছেন রিচার্ডস তাদের একজন। রুদ্ধদ্বার বৈঠকে ঠিক কি আলোচনা হয়েছে সে ব্যাপারে কিছু বলতে চাননি তিনি।

- Advertisement -

রিচার্ডস বলেন, ভ্যাকসিন নেওয়ার উপযুক্ত প্রত্যেককে ভ্যাকসিন গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করছি আমরা। তবে ভ্যাকসিন নেওয়ার পর নতুন নির্বাচিত ৩৩৮ এমপির হাউস অব কমন্সে প্রবেশের ব্যাপারে সাত এমপির সিদ্ধান্তের সঙ্গে আমরা একমত নই।
এদিকে কনজার্ভেটিভ নেতা এরনি ও’টুল নিজে ভ্যাকসিন নিলেও তার দলের নির্বাচিত ১১৮ জন এমপির মধ্যে ঠিক কতজন কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন নিয়েছেন সে ব্যাপারে কিছু বলেননি। তবে দ্য কানাডিয়ান প্রেসের এক বিশ্লেষণ অনুযায়ী, কমপক্ষে ৭৯ জন ভ্যাকসিন নেওয়ার কথা জানিয়েছেন। দুইজন স্বাস্থ্যগত কারণে ভ্যাকসিন না নেওয়ার কথা জানিয়েছেন। আর একজন নিয়েছেন এক ডোজ। দ্বিতীয় ডোজের বুকিং দেওয়ার ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন তিনি।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles