24.3 C
Toronto
রবিবার, জুন ২৩, ২০২৪

শরীর দেখিয়ে নেতাদের ফাঁদে ফেলতেন নেত্রীর মেয়ে!

শরীর দেখিয়ে নেতাদের ফাঁদে ফেলতেন নেত্রীর মেয়ে!
প্রতীকী ছবি

শরীর দেখিয়ে যৌনতার ফাঁদে ফেলে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাদের লাখ লাখ টাকার প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে এক নেত্রীর মেয়ের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় প্রিয়াঙ্কা রায় নামে ওই তরুণীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিমবঙ্গের উত্তর ২৪ পরগনার বসিরহাটের হাড়োয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের রাখালপল্লিতে। আজ বৃহস্পতিবার প্রিয়াঙ্কাকে বসিরহাট মহকুমা আদালতে হাজির করে রিমান্ডের আবেদন জানায় পুলিশ।

- Advertisement -

পুলিশের বরাত দিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার জানায়, প্রিয়াঙ্কার বিরুদ্ধে অভিযোগ, ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপে বিভিন্ন নেতাদের সঙ্গে কথাবার্তা, ছবি আদান-প্রদান করে প্রতারণার ফাঁদ পাততেন তরুণী। তারপর তাদের বিরুদ্ধে কখনও ধর্ষণ বা ধর্ষণের চেষ্টা অভিযোগ তুলে লাখ লাখ টাকা দাবি করতেন। খোদ বিজেপির বসিরহাট সাংগঠনিক জেলার নেতা রাজেন্দ্র সাহা এই অভিযোগ তুলেছেন। ২০১৯ সালের ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছিলেন রাজেন্দ্র।

পুলিশের দাবি, রাজেন্দ্র ছাড়াও আরও বেশ কয়েকজন নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেছিলেন প্রিয়াঙ্কা। উল্টো দিকে তাঁর বিরুদ্ধে প্রতারণার ফাঁদ পাতার অভিযোগ আসছিল। স্বরূপনগর থানায় সম্প্রতি দায়ের হওয়া এ রকম একটি অভিযোগের তদন্তে নেমে প্রিয়াঙ্কাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার বিরুদ্ধে বসিরহাট মহকুমা সাইবার ক্রাইম থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

রাজেন্দ্র বলেন, ‘হাড়োয়ায় বিজেপির মহিলা মোর্চা মণ্ডলের সাধারণ সম্পাদক নমিতা রায়ের মেয়ে। প্রিয়াঙ্কাই দলকে কালিমালিপ্ত করছে! শাসকবিরোধী সব দলের ভাবমূর্তি নষ্ট করছে। নেতাদের আত্মসম্মান নিয়ে খেলা করছে। দল দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিক।’

পুলিশের দাবি, জেরায় প্রতারণার অভিযোগ স্বীকার করেছেন প্রিয়াঙ্কা। জানিয়েছেন, যৌনতার ফাঁদ পেতে নেতাদের থেকে লাখ লাখ টাকা তুলেছেন। এর পিছনে বড় কোনও চক্র রয়েছে কি না, তা খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা।

এদিকে প্রিয়াঙ্কার মা নমিতার দাবি, ‘তার মেয়ের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। চক্রান্ত করে ফাঁসানো হচ্ছে আমার মেয়েকে। আমার মেয়ে কারও থেকে কোনও টাকাপয়সা নেয়নি। সম্পূর্ণ মিথ্যা অভিযোগ।’

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles