ফেসবুকের নতুন নাম ‘মেটা’

- Advertisement -

অবশেষে নাম পরিবর্তন হলো মার্ক জুকারবার্গের কম্পানি ফেসবুকের

অবশেষে নাম পরিবর্তন হলো মার্ক জুকারবার্গের কম্পানি ফেসবুকের। জানা যাচ্ছে মার্ক জুকারবার্গের কোম্পানির নতুন নাম হচ্ছে ‘মেটা।

চলতি বছরের সম্মেলনে ফেসবুকের প্রধানকর্তা মার্ক জাকারবার্গ নাম পরিবর্তনের বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেন। এরপরই আগের নাম পরিবর্তন করে নতুন নাম ঘোষণা করা হয়।

- Advertisement -

বৃহস্পতিবার ফেসবুক কানেক্ট অগমেন্টেড এবং ভার্চুয়াল রিয়েলিটি কনফারেন্সে নাম পরিবর্তনের ঘোষণা দেওয়া হয়। ফেসবুক, এখন মেটা নামে পরিচিত। একটি ভার্চুয়াল বিশ্বে কাজ করার এবং খেলার জন্য তার দৃষ্টিভঙ্গি বর্ণনা করার জন্য, সাই-ফাই শব্দের মেটাভার্সের উপর ভিত্তি করে নতুন মনীকার গ্রহণ করেছে।

মেটা সিইও মার্ক জুকারবার্গ বলেন, ‘আজকে আমরা একটি সোশ্যাল মিডিয়া কোম্পানি হিসেবে দেখা হয়, কিন্তু আমাদের ডিএনএ-তে আমরা এমন একটি কোম্পানি যা মানুষকে সংযুক্ত করার জন্য প্রযুক্তি তৈরি করে, এবং মেটাভার্স হল পরবর্তী সীমানা, ঠিক যেমনটি আমরা শুরু করেছিলাম যখন সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ছিল।’

- Advertisement -

কেন মেটা নামটি বেছে নেওয়া হয়েছে সে সম্পর্কে কম্পানির সিইও মার্ক জুকারবার্গ লিখেছেন, ‘ক্লাসিকস পড়তে বরাবরই ভালোবাসি। গ্রিক শব্দ ‘বিয়ন্ড’ (অনন্ত) থেকে এসেছে মেটা শব্দটি। ব্যক্তিগতভাবে যে শব্দ বেছে নেওয়ার কারণ আরো অনেক কিছু তৈরি করা বাকি। আমাদেরও পথচলার অনেক নতুন পথ বাকি, সেই ধারণা থেকেই এই নামকরণ।’

- Advertisement -

২০০৪ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি পথচলা শুরু করেছিল ফেসবুক। তারপর থেকে মার্ক জুকারবার্গের হাত ধরে ক্রমশ শাখা-প্রশাখা বিস্তার করেছে ফেসবুক।

ইনস্টাগ্রাম, মেসেঞ্জার, অকুলাসের মতো শাখার পাশাপাশি জনপ্রিয় মেসেজিং অ্যাপ হোয়াটসঅ্যাপ সবই এই মুহূর্তে ছিল মাদার কোম্পানি ফেসবুকের অধীনস্থ। কিন্তু নতুন নামকরণে নতুন পথচলা শুরুর ইঙ্গিত দিলেন মার্ক জুকারবার্গ।

কোম্পানিটির কর্মকর্তারা বলছেন, ফেসবুক ইনকরপোরেশনের আওতায় বর্তমানে ইনস্টাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপের মতো একাধিক প্ল্যাটফর্ম রয়েছে, তাই মূল প্রতিষ্ঠানের নাম ফেসবুক হওয়া বাঞ্ছনীয় নয়। এ জন্য মূল প্রতিষ্ঠানের নামটি পরিবর্তন করা হয়েছে। অনেকটা গুগলের মতো। মূল সংস্থার নাম হিসেবে রয়েছে গুগল আলফাবেট, সেভাবেই নাম বদলাল ফেসবুক।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles