আপত্তিকর অবস্থায় ধরা, স্ত্রীর প্রেমিককে পিটিয়ে মারলেন স্বামী

- Advertisement -


প্রতীকী ছবি

রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলায় স্ত্রীর সঙ্গে প্রেমিককে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে প্রেমিককে পিটিয়ে হত্যা করেছেন স্বামী। একই সঙ্গে স্ত্রীকেও পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন তিনি। এ ঘটনার পর থেকে গা ঢাকা দিয়েছেন অভিযুক্ত স্বামী।

রোববার (৩ অক্টোবর) ভোরে আহত পারভেজ ইসলাম রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এর আগে শনিবার (২ অক্টোবর) রাতে পীরগঞ্জ পৌর এলাকার সোনাকান্দর মহল্লায় পরকীয়ার অভিযোগে লাঠিপেটা করার এ ঘটনা ঘটে।

- Advertisement -

নিহত ব্যক্তি পীরগঞ্জ উপজেলা সদরের বালুয়াঘাট গ্রামের রেনু মিস্ত্রির ছেলে পারভেজ ইসলাম (২৫)। তিনি পীরগঞ্জ বন্দরবাজারে ইলেকট্রনিক সার্ভিসিংয়ের ব্যবসা করতেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, দীর্ঘদিন ধরে পারভেজের সঙ্গে এক নারীর পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। ঘটনার দিন শনিবার (১ অক্টোবর) রাত সাড়ে ১০টার দিকে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে ওই নারীর বাড়িতে যান পারভেজ। এ সময় প্রেমিকের সঙ্গে স্ত্রীকে অন্তরঙ্গ মুহূর্তে দেখে ফেলেন স্বামী। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে লাঠি দিয়ে পারভেজের মাথায় আঘাত করেন তিনি। এছাড়া স্ত্রীকেও মারধর করেন।

এর পরে আশপাশের লোকজন গুরুতর অবস্থায় ২ জনকে উদ্ধার করে পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। এ সময় পারভেজকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার (৩ অক্টোবর) ভোরে মারা যান। ওই নারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তার একটি সন্তান রয়েছে। তবে ঘটনার পর থেকে তার স্বামী পলাতক রয়েছেন।

পীরগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সরেস চন্দ্র বলেন, এ ঘটনাটি খতিয়ে দেখছি। ঘটনার পর থেকে স্বামী পলাতক রয়েছেন।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles