4.3 C
Toronto
রবিবার, এপ্রিল ২১, ২০২৪

‘পুরুষ প্রেমিকা’র কাছে লাখ টাকা খোয়ালেন যুবক!

‘পুরুষ প্রেমিকা’র কাছে লাখ টাকা খোয়ালেন যুবক!
প্রতীকী ছবি

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে খেসারত দিলেন এক যুবক। খুইয়েছেন লাখেরও বেশি টাকা, সেইসঙ্গে যাকে প্রেমিকা ভেবে ভালবেসেছিলেন, তিনি আসলে একজন পুরুষ। ভারতের পশ্চিম মেদিনীপুরের দাসপুরে ঘটেছে এ ঘটনা। ইতোমধ্যে দেশটির পুলিশ এ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, ঘটনার শিকার যুবক সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একজনের সঙ্গে বার্তা আদান-প্রদান করতেন। এতে ধীরে ধীরে দুইজনের মধ্যে বেশ একটা সম্পর্ক গড়ে উঠে। ফোনে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কথাও বলতেন তারা। কিন্তু হঠাৎই ভুক্তভোগী যুবক আবিষ্কার করেন, তার প্রেমিকা আসলে মেয়ে নন, তিনি আদতে একজন পুরুষ।

- Advertisement -

ভুক্তভোগী যুবকের অভিযোগ, তার ‘পুরুষ প্রেমিকা’ বাংলাদেশি মুদ্রায় এক লাখের বেশি টাকা তার কাছ থেকে কৌশলে হাতিয়ে নিয়েছে। প্রেমিকা মেয়ে নন জানতে পেরে অভিযুক্তকে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছেন তিনি।

দাসপুরের ওই যুবকের দাবি, বেশ কিছু দিন আগে তার সঙ্গে আলাপ হয় চন্দ্রকোনার এক ‘নারী’র। মৃদু কণ্ঠ, উষ্ণ আলাপচারিতায় প্রেমে পড়ে যান তিনি। বেশ জমে উঠেছিল প্রেম। ফোনেই ভালবাসা নিবেদন করেছেন এবং ‘প্রেমিকা’ তা গ্রহণও করেন।

এর মধ্যে ‘প্রেমিকা’ আবদার করেন তার কিছু টাকার দরকার। এই ভাবে ধাপে ধাপে ৯০ হাজার রুপি নিয়েছিলেন তার কাছে। এরপরও ঠিকঠাক চলছিল সবকিছু। কিন্তু হঠাৎ একদিন প্রেমিকার সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে কয়েকবার পুরুষ কণ্ঠ শুনতে পান। এতে সন্দেহ জাগে তার।

তাই সন্দেহ দূর করতে ‘প্রেমিকা’র ভাইয়ের সঙ্গে আলাপ করার চিন্তা আসে ওই যুবকের মাথায়। তিনি আগে থেকে জানতেন ‘প্রেমিকা’র ভাই মেক-আপ আর্টিস্ট। তাই কনে সাজানোর নাম করে ‘প্রেমিকা’র ভাইকে দাসপুরে ডাকেন। এরপরেও পর্দাফাঁস।

ওই মেক-আপ আর্টিস্ট জানান, যাকে তার দিদি বলে ভেবে বসে আছেন যুবক, তিনি আসলে তার দাদা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মেয়ের নাম ও ভুয়া ছবি দিয়ে একটি অ্যাকাউন্ট খুলেছিলেন তার দাদা। নারী কণ্ঠে কথা বলতেন। এর ‘ফাঁদে’ পড়েছেন তিনি।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles