-5.4 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২৪

সরকারের হাতে হারিকেন ধরিয়ে বিদায় দেওয়ার পালা: নুর

সরকারের হাতে হারিকেন ধরিয়ে বিদায় দেওয়ার পালা: নুর
<br >গণঅধিকার পরিষদের সদস্যসচিব নুরুল হক নুর ছবি সংগৃহীত

বিদ্যুতের অস্বাভাবিক দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে রাজধানীতে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে গণঅধিকার পরিষদ। আজ শুক্রবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সংগঠনটি এ কর্মসূচি পালন করে। সমাবেশে গণঅধিকার পরিষদের সদস্যসচিব নুরুল হক নুর বলেন, বিদ্যুৎ উৎপাদনে ব্যর্থ এ সরকার জনগণের হাতে হারিকেন ধরিয়ে দিয়েছে, এখন সরকারের হাতে হারিকেন ধরিয়ে বিদায় দেওয়ার পালা। এক মাসে দুই বার বিদ্যুতের দাম বাড়িয়ে এই সরকার জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করছে, ধোকাবাজি করছে। সরকার বাণিজ্যিক পর্যায়ে গ্যাস এবং বিদ্যুতের যে মূল্য বাড়িয়েছে তার ফলে কলকারখানা, গার্মেন্টস এবং শিল্প প্রতিষ্ঠানের সব খরচ বেড়ে যাবে ফলে এই ব্যয়ভার জনগণের উপরে তারা চাপাবে।

তিনি আরও বলেন, সরকার বলছে, এটা গ্রাহকদের উপর বাড়ানো হয় নাই ব্যবসায়ীদের উপর বাড়িয়েছে কারণ ব্যবসায়ীরা অনেক টাকার মালিক। কিন্তু ব্যবসায়ীরা তো এই খরচ ক্রেতাদের কাছ থেকে নিবে। বিদ্যুতের দাম সমন্বয়ের কথা বলে অলরেডি ১২ শতাংশ বাড়িয়েছে এই সরকার। এই সরকার যে ডাকাত সরকার এই সরকার যে লুটপাটের সরকার তা আর নতুন করে বলার কিছু নাই।

- Advertisement -

তিনি আরও বলেন, ‌‘আমরা গণতন্ত্র মঞ্চের সঙ্গে যেমন আছি তেমনি বৃহৎ স্বার্থে অন্য সব বিরোধী দলগুলো নিয়ে বৃহৎ ঐক্য গড়ে তুলতে চাই।’

সমাবেশে গণঅধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মুহাম্মদ রাশেদ খান বলেন, ‘আওয়ামী লীগের উন্নয়ন, হাতে হাতে হারিকেন। মাসে মাসে বিদ্যুৎ ও গ্যাসের দাম বাড়িয়ে মানুষের পকেট কাটছে অবৈধ সরকার। আইএমএফের কাছ থেকে ঋণ পেতে জনগণের উপর এই জুলুম শুরু করেছে। এই জুলুমবাজ সরকারকে অনতিবিলম্বে পদত্যাগ করতে হবে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, যুগপৎ আন্দোলন ভূয়া। আমরা বলতে চাই, যারা হিরো আলমকে ভয় পায়, তাকে হারিয়ে দেয়। তারাই ভূয়া। এই ভূয়া সরকারের বিরুদ্ধে আমাদের গণপ্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।’

বিক্ষোভ সমাবেশে যুগ্ম আহ্বায়ক মাহফুজুর রহমান খান ও সাইফুল্লাহ হায়দারের সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য দেন গণঅধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক হাসান, আবু হানিফ, সোহরাব হোসেন, বিপ্লব কুমার পোদ্দার, সাদ্দাম হোসেন, শাকিলউজ্জামান, ড. মালেক ফরাজী, জসিম উদ্দিন, পাঠান আজহার, সহকারী আহ্বায়ক শামসুদ্দিন, যুগ্ম সদস্যসচিব আতাউল্লাহ, তারেক রহমান, মহানগর দক্ষিণের সসদস্যসচিব ইসমাইল হোসেন, ছাত্র অধিকার পরিষদের সভাপতি বিন ইয়ামিন মোল্লা, যুব অধিকার পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নাদিম হাসান, সাংগঠনিক সম্পাদক মুনতাজুল, শ্রমিক অধিকার পরিষদের সভাপতি আব্দুর রহমান প্রমুখ। বিক্ষোভ সমাবেশ শেষে সংগঠনটির নেতাকর্মীরা হাতে হারিকেন নিয়ে মিছিল বের করে। মিছিলটি পল্টন মোড়, কাকরাইল,নাইটিঙ্গেল, ফকিরাপুল মোড় হয়ে পুরানা পল্টনে গণঅধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles