-4.5 C
Toronto
বুধবার, ফেব্রুয়ারী ১, ২০২৩

কাঁচা বয়সে কেন চুল পাকে? সমাধানই বা কী?

কাঁচা বয়সে কেন চুল পাকে? সমাধানই বা কী?

বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে চুল পেকে যাওয়া খুবই স্বাভাবিক। তবে অনেকে কাঁচা বয়সেই চুল পেকে যাওয়ার সমস্যায় ভোগেন। বর্তমানে বয়স ১৭ বা ১৮ পার হয়ে ৩০ ছুঁতেই অনেকের চুলের এক তৃতীংশ বা অর্ধেক পেকে যাচ্ছে। এর কারণ কী?

- Advertisement -

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সাধারণত খাওয়াদাওয়া এবং অত্যাধিক মানসিক চাপের কারণে এই সমস্যা দেখা দেয়। এছাড়া অতিরিক্ত পুরুষ হরমোনের উৎপাদন থেকেও চুল পেকে যেতে পারে। পুষ্টিবিদরা জানাচ্ছেন, জীবনযাপনে কিছু পরিবর্তন আনলে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব।

১। পাকা চুল কমাতে শিকাকাই ও রিঠার শ্যাম্পু ব্যবহার করা যেতে পারে। এই দুটি উপাদান প্রথমে কিছুক্ষণ ফুটিয়ে নিয়ে মিশ্রণটি দিয়ে মাথা ধুয়ে নিতে হবে। এছাড়া ১০ থেকে ১২টা আমলকি পানিতে ভিজিয়ে রেখে ছেঁকে নেওয়া পানি কন্ডিশনার হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে।

২। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট মানসিক চাপ কমাতে সাহায্য করে। এর জন্য বিভিন্ন শাকসব্জি, ফলের রস, বাদাম, কাজুবাদাম, আমন্ড ও ভিটামিন ই, সেলেনিয়াম, জিঙ্কস ফোলিক অ্যাসিডের সাপ্লিমেন্ট খাওয়া যেতে পারে। এগুলো মানসিক চাপ দূর করে চুল পেকে যাওয়া আটকায়।

৩। ভালো মানের প্রোটিন নিয়মিত খেলে অনেকটাই উপকার পাওয়া যায়। এর জন্য হোল গ্রেন, ডাল, মুরগির মাংস, ডিম নিয়মিত খাওয়া জরুরি। এর পাশাপাশি মাছ ও সয়ও খাওয়া যেতে পারে। প্রোটিন প্রাকৃতিকভাবে চুল পেকে যাওয়া প্রতিরোধ করে।

৪। ভিটামিন এ মাথার ত্বক (স্ক্যাল্প) ও চুলের স্বাস্থ্য উন্নত করতে সাহায্য করে। সবুজ শাকসবজি, কমলালেবু, হলুদ ফলে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ থাকে। প্রতিদিনকার ডায়েটে এই খাবারগুলো থাকলে সহজেই চুলের বার্ধক্য কমানো যায়।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles