11.3 C
Toronto
শনিবার, নভেম্বর ২৬, ২০২২

‘ফারদিনের লাশ শীতলক্ষ্যায় কিভাবে, খতিয়ে দেখা হচ্ছে’

‘ফারদিনের লাশ শীতলক্ষ্যায় কিভাবে, খতিয়ে দেখা হচ্ছে’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী ফারদিন নূর পরশের মরদেহ গাজীপুর থেকে কীভাবে শীতলক্ষ্যা নদীতে গেল, আমরা তদন্ত করছি। সেক্ষেত্রে দ্রুতই এ ঘটনার প্রকৃত কারণ বেরিয়ে আসবে।

- Advertisement -

বৃহস্পতিবার (১০ নভেম্বর) রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সের এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নে তিনি এ কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বুয়েটের যে শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে তার সর্বশেষ অবস্থান আমরা গাজীপুর পেয়েছিলাম। গাজীপুর থেকে পরবর্তীতে কীভাবে মরদেহ শীতলক্ষ্যা নদীতে এলো, এসব বিষয়ই খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পুরোপুরি তদন্ত না করে আগে তথ্য দেব, পরে এ বিষয়টি ভুল হবে।

সেরকম কোনও কিছু আমরা করতে চাই না। আমরা মনে করি এ ঘটনার পেছনে যারাই জড়িত তাদের খুঁজে বের করা আইনে শাস্তি নিশ্চিত করা। এটি একটি হত্যাকাণ্ড এবং সে বিষয়টি সামনে রেখে তদন্ত চলছে।

মন্ত্রী বলেন, তদন্ত শেষ করে রিপোর্ট পেলে পরবর্তীতে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে। আমরা ঘটনার পারিপার্শ্বিক অনেক কিছু নিয়ে কাজ করছি। এটি একটি জঘন্য হত্যাকাণ্ডও।

উল্লেখ্য, ৭ নভেম্বর বুয়েটের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ফারদিনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিবেটিং ক্লাবেরও যুগ্ম সম্পাদক ছিলেন। তিন ভাইয়ের মধ্যে ফারদিন সবার বড়।

ঘটনার পরপরই পুলিশের সঙ্গে র‌্যাব ও বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা মাঠে কাজ শুরু করেছে। তদন্তের স্বার্থে ফারদিনের বান্ধবী ও ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী বুশরাকে গ্রেপ্তার করে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে গোয়েন্দারা।

বুধবার (৯ নভেম্বর) দিবাগত রাতে এ ঘটনায় আমাতুল্লাহ বুশরাসহ অজ্ঞাত আরও কয়েকজনকে আসামি করে নিহতের বাবা নুর উদ্দিন রানা বাদী হয়ে রামপুরা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

সুত্র : রাইজিং বিডি

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles