24.3 C
Toronto
রবিবার, জুন ২৩, ২০২৪

স্বামীকে বশে আনতে গিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ

স্বামীকে বশে আনতে গিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ

পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলায় স্বামীকে বশের তদবির আনতে গিয়ে এক গৃহবধূ (২২) সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

- Advertisement -

শনিবার (১ অক্টোবর) বিকেলে কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জসিম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে একই দিন ভোরে উপজেলার মিঠাগঞ্জ ইউনিয়নের চরপাড়া গ্রাম থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তিরা হলেন- মালেক হাওলাদার (৫০), আলমগীর হাওলাদার (৩৬) ও শহিদুল ইসলাম (৫৫)।

আরও পড়ুন :: সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা পরিচয়ে ১০ বিয়ে, ৪৮ লাখ টাকা নিয়ে উধাও

জানা গেছে, ২০১৯ সালে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানার রসুলপুর এলাকার এক যুবকের সঙ্গে ভুক্তভোগী নারীর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই স্বামীর সঙ্গে তার বিরোধ চলে আসছিল। এরপর থেকে ভুক্তভোগী নারী বাবার বাড়িতেই থাকতেন। একপর্যায়ে ভুক্তভোগী নারী শহিদুল ফকিরের সন্ধান পান। এ সময় যোগাযোগ করা হলে শহিদুল জানান, ২০ হাজার টাকা দিলেই তার স্বামীকে বশে আনা যাবে।

স্বামীকে বশে আনতে গিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ

এদিকে শহিদুলের কথা বিশ্বাস করে তাকে ১৬ হাজার টাকা দেন ভুক্তভোগী। এরপর থেকে তদবির দেয়াসহ বিভিন্ন বিষয়ে ভুক্তভোগী নারীর সঙ্গে যোগাযোগ করতেন শহিদুল। সর্বশেষ গত ২৩ সেপ্টেম্বর তদবিরের কথা বলে ভুক্তভোগী নারীকে কলাপাড়া উপজেলার মিঠাগঞ্জে আসতে বলেন শহিদুল। পরে ভুক্তভোগীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করা হয়। এ ঘটনায় রোববার দুপুরে ভুক্তভোগী বাদী হয়ে ছয় জনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেন।

এ বিষয়ে কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জসিম বলেন, গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে।

সূত্র : আরটিভি

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles