10.9 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২

সাকিব শুভেচ্ছাদূত থাকবেন কি না, দেখছে দুদক

- Advertisement -

বাংলাদেশের জনপ্রিয় ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) শুভেচ্ছাদূত থাকবেন কি না, তা খতিয়ে দেখছে কমিশন। আজ মঙ্গলবার বিকেলে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে কমিশনের সচিব মো. মাহবুব হোসেন এ তথ্য জানান।

সাংবাদিকরা প্রশ্ন করেন, দুদকের শুভেচ্ছাদূত সাকিবের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে যে তিনি দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত। এতে কমিশনের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হবে কি না বা এ অবস্থাতেও সাকিব কমিশনের শুভেচ্ছাদূত থাকছেন কি না।

এ সময় কমিশনের সচিব মো. মাহবুব হোসেন বলেন, ‘অভিযোগ এলেই তো সঙ্গে সঙ্গে কোনো কিছু হয় না। একটু সময় দেন। বিষয়টি দুর্নীতি দুদক দেখছে, অপেক্ষা করুন।’

তিনি বলেন, ‘সাকিব বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার এবং দলের অধিনায়ক। তার সঙ্গে দুদকের ২০১৮ সালে ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে যে চুক্তিটি হয়েছিল, সেটি ছিল বিনা পারিশ্রমিকে উনি দুদকের হয়ে তথ্যচিত্র তৈরিতে কাজ করবেন। ওই বছরই যখন দুদকের ১০৬ কমপ্লেইন হটলাইন চালু হয়, তখন তার সঙ্গে শুধু একবার একটি তথ্যচিত্র করা হয়েছিল। পরবর্তীতে আমরা আর কোনো তথ্যচিত্র করিনি।’

সম্প্রতি জুয়া প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি, শেয়ারবাজারে কারসাজি, নিজের বাবার নাম জালিয়াতি করার অভিযোগ উঠেছে সাকিবের বিরুদ্ধে। এসব কর্মকাণ্ডকে দুর্নীতি হিসেবে দেখছেন অনেকে।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালে দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ সাকিবকে সংস্থার শুভেচ্ছাদূত হওয়ার প্রস্তাব দেন। দুদক চেয়ারম্যানের প্রস্তাবে ওই দিনই সম্মতি জানান সাকিব। এর পাঁচ মাস পর আনুষ্ঠানিকভাবে সাকিবকে দুদকের শুভেচ্ছাদূত করা হয়।

সূত্র : আমাদের সময়

Related Articles

Latest Articles