10.1 C
Toronto
বুধবার, অক্টোবর ৫, ২০২২

নিপুণ একটা বাজে মেয়ে: পীরজাদা হারুন

- Advertisement -

নিপুণ একটা বাজে মেয়ে: পীরজাদা হারুন

সাইদুল ইসলাম রানা পরিচালিত ‘বীরত্ব’ সিনেমা মুক্তি পাচ্ছে শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর)। সিনেমাটির মুক্তি উপলক্ষে প্রচারণা চালাচ্ছেন সংশ্লিষ্ট তারকারা। এতে একজন যৌনকর্মীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন ঢাকাই সিনেমার চিত্রনায়িকা নিপুণ। কিন্তু মুক্তির আগের রাতে সেই নিপুণকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন বর্ষীয়ান অভিনেতা পীরজাদা শহীদুল হারুন।

বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টার দিকে অভিনেত্রী নিপুণকে নিয়ে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন পীরজাদা হারুন। সেখানে তিনি লিখেছেন, “নিপুন একটি বাজে মেয়ে। তার স্বভাব চরিত্রে প্রবলেম আছে বহুবিধ। তাই সে নিজেকে স্বাভাবিক জীবনযাত্রায় নিয়োজিত রাখতে না পেরে অস্বাভাবিক পথ বেছে নেয়। আর একারণেই কিন্তু তাকে বিতর্কিত হতে হয় প্রায়শ।”

“একমাত্র আমিই তার ভবিষ্যতের বিষয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত দিয়েছিলাম। কারণ আমি তো বিচারক ছিলাম। আর এই বিচারকগণ বাস্তবতার প্রমাণ, কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করেই কিন্তু আদেশ দিয়ে থাকেন। আমিও নিপুণের বিষয়ে সবকিছু সঠিকভাবে, ন্যায়সঙ্গতভাবে বিচার-বিশ্লেষণ করেই আমার আদেশ দিয়েছিলাম। এতে কিন্তু বিন্দুমাত্র আমার কোনো স্বার্থ ছিল না। তাতে কে কি বলল, সেটা আমি পরোয়া করি না। কারণ আমি সঠিক ছিলাম। আর আমি জানি সঠিক সব সময় সত্য এবং সত্য একদিন প্রকাশ পাবেই।”

ই অভিনেতা সবশেষ লিখেছেন, “সন্দেহের কোনো কোনো বেড়া জাল যদিও সত্য প্রকাশকে মাঝে মাঝে বিলম্বিত করে ঠিকই। কিন্তু তা সাময়িক, পরে কিন্তু আসল সত্যি ঠিকই বের হয়ে আসে। তাই আমিও তার মেয়ের বিষয়ে সঠিক আদেশটিই আদালতে দিয়েছিলাম, পরে বাস্তবে কি হয়েছিল তা সিনেমার রঙিন পর্দায় দেখুন আগামীকাল হতে—সিনেমা ‘বীরত্ব’, পরিচালনায় সাইদুল ইসলাম রানা। চরিত্র- নিপুণ ‘পতিতা’ আর আমি ‘বিচারক’।

এ বিষয়ে পীরজাদা হারুন ‘চ্যানেল ২৪ অনলাইন’কে বলেন, বিষয়টি তেমন কিছুই নয়। আসলে ‘বীরত্ব’ সিনেমার প্রচারণার জন্যই এমন ব্যতিক্রমী স্ট্যাটাস দেয়া। এটি কেবলই প্রচারণার অংশ। আমি চাইব মানুষ সিনেমা হলে আসুক, সিনেমা দেখুক। নিয়মিত সিনেমাও মুক্তি পাক।

প্রসঙ্গত, গত ২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদের নির্বাচনের প্রাথমিক ফলে সাধারণ সম্পাদক পদে জায়েদ খানকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। পরবর্তীতে নিপুণ নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ তুলে। যা এখন আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। আর এই নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন পীরজাদা হারুন।

Related Articles

Latest Articles