প্রচ্ছদ বিনোদন ‘চামড়া ঝুলে গেছে’, ছোট পোশাক পরে বিদ্রূপের শিকার মালাইকা

‘চামড়া ঝুলে গেছে’, ছোট পোশাক পরে বিদ্রূপের শিকার মালাইকা

79

গত দেড় যুগ ধরেই বলিউডের ফ্যাশন আইকন হিসেবে পরিচিত মালাইকা আরোরা। আরবাজ খানের সাবেক এই স্ত্রী ৪৮ বছর বয়সেও যেভাবে নিজেকে ধরে রেখেছেন, তা সবাইকে অবাক করে দেয়। খোলামেলা পোশাকে বরাবরই নজড় কেড়ে এসেছেন এই অভিনেত্রী। তবে তার খোলামেলা পোশাক যেমন ভক্ত অনুরাগীদের ভাল লাগে, তেমনি কিছু সময় তাকে ঘিরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তৈরি হয় ব্যঙ্গাত্মক পরিস্থিতি।

সম্প্রতি আরো একবার জিমের পোশাকে ট্রলের শিকার হলেন এই অভিনেত্রী। গাঢ় নীল রঙের একটি টু-পার্ট জিমের পোশাকে বেরিয়েছিলেন তিনি। টাইটসের সঙ্গে ব্রালেট পড়েছিলেন। আর তাতেই নজর পড়ে নেটিজেনদের। তাদের মতে এই পোশাকে স্পষ্টভাবে ফুটে উঠেছিল মালাইকার পেটে থাকা স্ট্রেচ মার্কস। যা নজর এড়ায়নি তাদের। সঙ্গে সঙ্গে শুরু হয়ে যায় অনলাইনে ব্যঙ্গ করা। এর আগেও ‘বুড়ি’ কিংবা ‘চামড়া ঝুলে গেছে’র মত বাজে মন্তব্য শুনতে হয়েছে মালাইকাকে!

সম্প্রতি মালাইকাকে জিমের পোশাকে দেখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একজন লিখেছেন, ‘পেটে এগুলো কি’! আরেকজন লিখেছেন, ‘স্ট্রেচ মার্কস আছে যখন ঢেকে রাখো। এভাবে তা দেখানোর কি দরকার। নোংরা লাগছে তো’।

তবে নোংরা মন্তব্যের পাশাপাশি অনেকেই মালাইকার পাশেও দাঁড়িয়েছেন। এক অনুরাগী লিখেছেন, এইখানে যারা স্ট্রেচ মার্কসের জন্য ট্রোলিং করছেন তাদের বলে দেই, অনেকেই আছেন যারা এই দাগ পাওয়ার জন্য যা খুশি করতে প্রস্তুত। মা হওয়া এই পৃথিবীর সবচেয়ে বড় আনন্দের অনুভূতি।

শুধু জামাকাপড় নয়, অর্জুন কাপুরের সঙ্গে সম্পর্কের কারণেও নিয়মিত বেশ সমালোচনায় থাকেন মালাইকা। ডিভোর্সি ও এক সন্তানের মা মালাইকার সঙ্গে অর্জুন কাপুরের বয়সের পার্থক্য ১১ বছরের। আর সেটা নিয়েও ‘বুড়ি’ শব্দটা নিয়মিত শুনতে হয় মালাইকাকে!

যদিও বহু সাক্ষাৎকারে আরবাজ খানের প্রাক্তন বউ জানিয়েছেন, ‘আসলে ট্রোলিং করাটা একটা নেশা। আমি যে পোশাক পড়ছি তা রিহানা পরলে বাহবা দিত সবাই। কিন্তু আমি বা বলিউডের কোনো নায়িকা পরলেই শুনতে হবে নোংরা নোংরা কথা। পোশাক তো যার যার ইচ্ছাতেই পরা উচিত। আমি মনে করি পোশাক নিয়ে সমালোচনা করার কোনো অর্থই নেই।’