25.5 C
Toronto
সোমবার, আগস্ট ৮, ২০২২

বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় এসিডে ঝলসে দেওয়া হলো ঘুমন্ত নারীকে

- Advertisement -

বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় এসিডে ঝলসে দেওয়া হলো ঘুমন্ত নারীকে

নরসিংদীর পলাশে বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় এক নারীর ওপর এসিড নিক্ষেপ করে ঝলসে দিয়েছে শফিকুল ইসলাম পঙ্খী মিয়া (৩০) নামে এক বখাটে।

এতে দগ্ধ ওই নারীর বাম হাত ও পিঠসহ কোমর পর্যন্ত ঝলসে গেছে। গুরুত্বর অবস্থায় তাকে নরসিংদীর সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

বুধবার দুপুরে ভুক্তভোগী নারী রত্না আক্তার বাদী হয়ে পলাশ থানায় একটি মামলা দায়ের করে। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত বখাটে শফিকুল ইসলাম পঙ্খী মিয়াকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতার শফিকুল ইসলাম পঙ্খী মিয়া নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ উপজেলার টাওরা গ্রামের মৃত রহিম মিয়ার ছেলে।

থানায় অভিযোগের সূত্রে জানা যায়, এক সন্তানের জননী তালাকপ্রাপ্ত রত্না আক্তার (২৫) তার মেয়েকে নিয়ে উপজেলার ডাঙ্গা ইউনিয়নের জয়নগর গ্রামে বাবা মুজিবুর রহমানের বাড়িতে বসবাস করেন। গত ৪ মাস পূর্বে পার্শ্ববর্তী রূপগঞ্জ উপজেলার শফিকুল ইসলাম পঙ্খী মিয়া বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে তার বাড়িতে আসে। এরপর শফিকুল ইসলাম পঙ্খী মিয়ার স্বভাবগত বিষয়ে খোঁজ-খবর নিয়ে ওই বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে দেয় রত্না আক্তার ও তার পরিবার।

তারপরও বখাটে শফিকুল ইসলাম পঙ্খী মিয়া বিভিন্ন সময় রাস্তা-ঘাটে রত্না আক্তারকে একা পেলেই বিয়ের প্রস্তাব দিতে থাকে। কিন্তু প্রতিবারই বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে ভুক্তভোগী রত্না আক্তার। এতে পঙ্খী মিয়া ক্ষিপ্ত হয়ে রত্না আক্তারকে প্রাণনাশের হুমকিসহ বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখানো শুরু করে।

এরই মধ্যে গত সোমবার তিনি তার নিজ ঘরে ঘুমাচ্ছিলেন। রাত আনুমানিক সাড়ে ৩টার দিকে হঠাৎ ঘুমন্ত রত্না আক্তারের ওপর এসিড নিক্ষেপ করেন। এ সময় ভুক্তভোগীর চিৎকারে এলাকার আশপাশের লোকজন ছুটে আসলে বখাটে পঙ্খী মিয়া পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা রত্নাকে উদ্ধার করে পলাশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে নরসিংদীর সদর হাসপাতালে রেফার্ড করে।

পলাশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডা. আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, এসিডে ওই নারীর বাম হাত ও পিঠসহ কোমরের ১২ থেকে ১৬ শতাংশ ঝলসে গেছে। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে নরসিংদীর সদর হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে পলাশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ইলিয়াছ জানান, বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় ঘুমন্ত ওই নারীর শরীরে এসিড নিক্ষেপের ঘটনায় অভিযুক্ত শফিকুল ইসলাম পঙ্খী মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পঙ্খী মিয়া প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এসিড নিক্ষেপ করার কথা স্বীকার করেছে। তার বিরুদ্ধে রত্না বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা করেছেন।

সূত্র: যুগান্তর

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles