19.2 C
Toronto
সোমবার, আগস্ট ১৫, ২০২২

কাজ চকলেট–ক্যান্ডি খাওয়া, মাসে বেতন ৬ লাখ

- Advertisement -

‘আপনি কি চকলেট-ক্যান্ডি খেতে ভালোবাসেন? আপনার কি মিষ্টান্নজাতীয় খাবার খেতে খুবই ভালো লাগে? এ–জাতীয় নতুন কিছুর জন্য অপেক্ষায় থাকেন? তা–ই যদি হয়, তাহলে এ পদে আপনিই সবচেয়ে উপযুক্ত ব্যক্তি।’ চিফ ক্যান্ডি অফিসার নিয়োগের বিজ্ঞপ্তিতে এসব কথা লিখেছে কানাডার একটি প্রতিষ্ঠান। নাম ক্যান্ডি ফানহাউস।

ক্যান্ডি ফানহাউস কানাডার অন্টারিওভিত্তিক কোম্পানি। নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে কোম্পানিটি বলেছে, ‘চকলেট ও ক্যান্ডি পছন্দ করেন, এমন মানুষকেই আমরা খুঁজছি। বার্ষিক বেতন এক লাখ কানাডিয়ান ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৭৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা)।

ঘরে বসে বা কানাডা ও নিউ জার্সি অফিস থেকে কাজ করতে হবে।’ চিফ ক্যান্ডি অফিসারের প্রধান কাজ হবে মূলত স্বাদ পরীক্ষা করা। কোম্পানিতে যেসব চকলেট ও ক্যান্ডি তৈরি করা হবে, সেগুলোর স্বাদ পরীক্ষা করে দেখবেন তিনি। চিফ ক্যান্ডি অফিসার পণ্যের স্বাদের ব্যাপারে ছাড়পত্র দিলেই তা বাজারে ছাড়া হবে। মাসে গড়ে সাড়ে তিন হাজার পণ্যের স্বাদ পরীক্ষা করতে হবে তাঁকে।

প্রতিদিন গড়ে প্রায় ১১৩টি ক্যান্ডি খাওয়া ছাড়াও আরও অনেক দায়িত্ব রয়েছে চিফ ক্যান্ডি অফিসারের। ক্যান্ডি নিয়ে পরিকল্পনা ও কৌশল নির্ধারণে ফানহাউস নামের একটি বিভাগ আছে। সেটির নেতৃত্বে থাকবেন তিনি। এ ছাড়া ক্যান্ডি বোর্ড মিটিং তাঁকে করতে হবে। কোনো পণ্য বাজারে আনা যায়, সেটিও নির্ধারণ করবেন তিনি।

পাঁচ বছরের ওপরে যেকোনো বয়সী মানুষ এ পদে আবেদন করতে পারবেন। তবে শর্ত, আবেদনকারীকে উত্তর আমেরিকার কোনো দেশের বাসিন্দা হতে হবে। তবে অভিজ্ঞতা থাকা বাধ্যতামূলক নয়। এ ছাড়া চিফ ক্যান্ডি অফিসার পদে যিনি নিয়োগ পাবেন, দীর্ঘ প্রশিক্ষণের মধ্য দিয়ে তাঁকে সব বিষয়ে ধারণা দেওয়া হবে।

লিংকডইনের মাধ্যমে এখন পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ছয় হাজার মানুষ এ পদে আবেদন করেছেন। ৩১ আগস্ট পর্যন্ত আবেদন করা যাবে। তবে নিয়োগ দেওয়ার প্রক্রিয়াটা দীর্ঘ। কারণ, অনেক কিছুই যাচাই-বাছাই করার পর প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়। তাই নিয়োগের সময় বেশি লাগবে বলে কোম্পানিটি জানিয়ে দিয়েছে।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles