19.2 C
Toronto
সোমবার, আগস্ট ১৫, ২০২২

একই পুরুষে মজেছেন শ্রীদেবীর দুই কন্যা

- Advertisement -
ছবি সংগৃহীত

বলিউডে পা রাখার আগেই চর্চার কেন্দ্রে রয়েছেন শ্রীদেবীর ছোট মেয়ে খুশি কাপুর। জোয়া আখতারের আপকামিং ছবি দ্য আর্চিসে দেখা যাবে তাকে। ওই ছবিতে বেটি কুপারের চরিত্রে অভিনয় করেছেন খুশি। তবে বেশ কয়েক মাস ধরেই লাইমলাইটে রয়েছে স্টারকিডের লাভলাইফ।

কানাঘুষো শোনা যাচ্ছে, অক্ষত রাজনের সঙ্গে প্রেম করছেন তিনি। খুশিকে মাঝেমধ্যেই অক্ষতের সঙ্গে দেখা যায়। কখনো জমিয়ে পার্টি করেন তারা। কখনো আবার ডিনারে যান।

এমনকী ঘনিষ্ঠ মহলের দাবি, বনি কাপুরের বাড়িতেও যাতায়াত রয়েছে অক্ষতের। চাঞ্চল্যকর বিষয় হলো, ২০১৬ সালে অক্ষত জাহ্নবীর সঙ্গেও জমিয়ে প্রেম করেছেন। পার্টি, রেস্তোরাঁ, শপিং মল সর্বত্রই জাহ্নবীর সঙ্গে যাতায়াত করতে দেখা যেত অক্ষতকে। তবে ‘ধড়ক’ রিলিজের আগেই জাহ্নবী এবং অক্ষতের সম্পর্ক ভেঙে যায়। ইশান খট্টরের সঙ্গে সম্পর্কের জেরেই অক্ষতের সঙ্গে সম্পর্ক শেষ করেন নায়িকা। তবে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখেন তারা। ওই অধ্যায় শেষের পরই নাকি খুশির সঙ্গে মেলামেশা শুরু করেন অক্ষত।

তবে জাহ্নবীর সঙ্গে অক্ষত রাজন যতটা খোলামেলাভাবে মিশতেন, খুশির সঙ্গে ততটা মেশেন না। খুশি কাপুর বরাবরই একটু চাপা স্বভাবের। ছোট থেকেই ক্যামেরাকে কিছুটা এড়িয়ে চলতেন তিনি। ফলে ব্যক্তিগত জীবনের তথ্যও যে তিনি গোপনে রাখবেন, সেটাই স্বাভাবিক। তবে দুই বোনের সম্পর্ক খুবই ভালো। সেই কারণেই হয়তো খুশি জাহ্নবীর প্রাক্তনকে ডেট করলেও তিনি সেইভাবে আপত্তি জানাননি। গত বছর খুশির জন্মদিনের পার্টিতে তিনজনকে একসঙ্গেও দেখা যায়। দুই বোনের সঙ্গে ছবিও তুলেছিলেন অক্ষত।

তবে শোনা যায়, শ্রীদেবী সেই সময় চাননি তার মেয়ে বিনোদন জগতে আসুক। কিন্তু পরে নাকি তিনি তার ভুল বুঝতে পেরেছিলেন। সেই কারণেই জাহ্নবীকে অভিনয়ের অনুমতি দিয়েছিলেন অভিনেত্রী।

২০১৮ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি প্রয়াত হন কিংবদন্তী অভিনেত্রী শ্রীদেবী। ওই বছরই জুলাই মাসে শ্রীদেবীর বড় মেয়ে জাহ্নবী কাপুরের অভিষেক হয়। তবে খুশিও যে বড় বোনের পথ অনুসরণ করতে পারেন তা আগে বোঝা যায়নি।

গত বছর জানা যায়, মডেলিং নয়, বরং অভিনয়ের জগতে হাতেখড়ি দিতে চাইছেন খুশি কাপুর। সেই কারণেই জোয়া আখতারের ছবির গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করছেন তিনি। ২২ বছরের খুশি কাপুর মায়ের নয়নের মণি ছিলেন। মুম্বাইয়ের ধীরুভাই আম্বানি ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে পড়াশোনা করেছেন তিনি। এরপর আমেরিকায় চলে যান খুশি।

মার্কিন মুলুকে উচ্চশিক্ষা পেয়েছেন খুশি কাপুর। নিউইয়র্ক ফিল্ম অ্যাকাডেমিতে অভিনয় নিয়ে পড়াশোনা করেন। সেই সময়েই বিনোদনের জগৎ হাতছানি দিত খুশিকে।

তবে তিনি যে কোনোদিন অভিনেত্রী হবেন সেই কথা ভাবেননি খুশি কাপুর। এ প্রসঙ্গে বাবা বনি কাপুর বলেছিলেন, ছেলেবেলায় আমরা নিজেদের আসল প্যাশনের কথা বুঝতে পারি না।

সূত্র: এই সময়

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles