16.1 C
Toronto
সোমবার, জুন ২৭, ২০২২

‘সীতাকুণ্ডের ডিপোর পরিচালক আ.লীগ নেতা, এটাই তার খুঁটির জোর’

- Advertisement -

‘সীতাকুণ্ডের ডিপোর পরিচালক আ.লীগ নেতা, এটাই তার খুঁটির জোর’

চট্রগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম ডিপোতে বিস্ফোরণের ঘটনায় মালিকপক্ষের উদাসীনতাকে দায়ী করেছেন বিএনপির সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা।

তিনি বলেন, বিস্ফোরণে হতাহতের ঘটনা দুর্ঘটনা নয়, এটা হত্যাকাণ্ড। এত বড় ঘটনার পরও ডিপোর পরিচালক মুজিবুর রহমানের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না। কারণ তিনি চট্টগ্রাম দক্ষিণ আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ, এটাই তার খুঁটির জোর।

সোমবার (৬ জুন) জাতীয় সংসদে পয়েন্ট অব অর্ডারে দেওয়া বক্তব্যে রুমিন ফারহানা এসব কথা বলেন।

বিএপির এই সংসদ সদস্য বলেন, চট্টগ্রামের বিস্ফোরক পরিদপ্তর ও ফায়ার সার্ভিস জানিয়েছে, ওই ডিপোতে দাহ্য পদার্থ রাখার বিষয়টি মালিকপক্ষ তাদের জানায়নি। সেটা তাদের জানা থাকলে অগ্নিনির্বাপণের জন্য তারা ভিন্ন ব্যবস্থা নিতেন। এতে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটত না এবং ফায়ার সার্ভিসের এত কর্মীও মারা যেতেন না। এই জীবনগুলো ঝরেছে ডিপোর মালিকপক্ষের উদাসীনতার কারণে। এজন্য মালিকপক্ষের বিরুদ্ধে অবিলম্বে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া সময়ের দাবি।

দেশে ব্যর্থতার দায়ে পদত্যাগের সংস্কৃতি নেই, তাই তিনি নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রীর পদত্যাগ চান না উল্লেখ করে রুমিন ফারহানা আরও বলেন, ২০১২ সালে তাজরীন ফ্যাশনসে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ১১১ জন পোশাককর্মী মারা যান। এই ঘটনায় মামলা হলেও ১০ বছরেও তার সুরাহা হয়নি। অচত সেই ঘটনার মূল আসামি তাজরীন ফ্যাশনসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক দেলোয়ার হোসেনকে সম্প্রতি ঢাকা মহানর উত্তর আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি নির্বাচিত করা হয়েছে।

এদিকে সীতাকুণ্ডের বিএম ডিপোতে বিস্ফোরণের ঘটনায় প্রয়োজনীয় উপকরণ না থাকায় সরকারকে প্রশ্ন করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, গতকাল টেলিভিশনে সেনাবাহিনীর একজন দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসারকে বলতে শুনলাম যে, তাদের কাছে প্রয়োজনীয় উপকরণ নেই। আজকে আমি এই জায়গায় প্রশ্ন করতে চাই- এই সরকার তাহলে কী করছে? এই ধরনের অগ্নিকাণ্ডগুলো নিয়ন্ত্রণ করার মতো আমাদের প্রয়োজনীয় লোকবল ও উপকরণ নেই কেন?

সূত্র : আরটিভি

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles