11.7 C
Toronto
মঙ্গলবার, জুন ২৮, ২০২২

সঙ্গীর সঙ্গে যেসব বিষয় শেয়ার করা ঠিক নয়

- Advertisement -
সঙ্গীর সঙ্গে যেসব বিষয় শেয়ার করা ঠিক নয়
প্রতীকী ছবি

সম্পর্ক গড়ে তোলার চেয়ে তা টিকিয়ে রাখা আরও কঠিন কাজ। অনেক সময় সামান্য ভুলের কারণে সম্পর্ক ভেঙে যেতে পারে। প্রতিটি সম্পর্ক সত্য এবং সততার ওপর ভিত্তি করে।

এটা বলা হয়,সঙ্গীর সঙ্গে প্রতিটি ছোট জিনিস শেয়ার করা সম্পর্ককে মজবুত রাখে। এমন পরিস্থিতিতে, বেশিরভাগ দম্পতি একে অপরের সঙ্গে সবকিছু ভাগ করে নেন। তবে এটাও ঠিক মাঝে মাঝে কিছু জিনিস গোপন রাখাই ভাল।

এমন অনেক বিষয় রয়েছে যা সঙ্গীর সঙ্গে শেয়ার করা উচিত নয়। এতে সম্পর্কের ওপর সরাসরি প্রভাব ফেলতে পারে। যেমন-

পুরনো সম্পর্কের কথা বলবেন না : প্রায় প্রত্যেকের কোনও না কোনও অতীত থাকে। সবাই সঙ্গীর অতীতের সম্পর্কের কথা মানতে পারেন না। আপনি যদি আপনার সঙ্গীকে অতীতের কথা বলেন, তাহলে সে প্রতিটি ছোটখাটো ঝগড়ার মধ্যেই আপনার অতীতের প্রসঙ্গ তুলে ধরতে পারে। যা আপনার সম্পর্ক ভেঙে দিতে পারে। এ কারণে এই ব্যাপারে সাধান হোন।

সঙ্গীর পরিবারের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করবেন না: আপনি যদি আপনার সঙ্গীর মা-বাবার সম্পর্কে কিছু পছন্দ না করেন তাহলেও সঙ্গীর সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করবেন না। কোনও মানুষই তার মা-বাবা সম্পর্কে খারাপ কথা সহ্য করতে পারে না। এটি আপনার সম্পর্কের ক্ষেত্রে সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে।

প্রাক্তনের সঙ্গে বন্ধুত্ব থাকলে সঙ্গীকে এটা বলবেন না: প্রাক্তন এখন কেবল আপনার বন্ধু হতে পারে। তবে এটা আপনার সঙ্গীকে কখনই বলবেন না। যদি আপনার সঙ্গী জানতে পারেন যে আপনি এখনও আপনার প্রাক্তনের সঙ্গে কথা বলছেন, তবে তিনি তা সহ্য করতে পারবেন না। তার মনে ধারণা জন্মাতে পারে যে আপনি প্রতারণা করছেন।

সঙ্গীকে বলবেন না কোন জিনিসটা খারাপ: কোনও মানুষই নিখুঁত নয়। প্রত্যেক মানুষেরই কিছু না কিছু ত্রুটি থাকে। এমন পরিস্থিতিতে, এটা গুরুত্বপূর্ণ যে আপনি আপনার সঙ্গীর ত্রুটিগুলি তুলে ধরবেন না। তবে তাদের ভাল জিনিসগুলিতে মনোযোগ দিন। আপনি যখন কাউকে তার ভুল-ত্রুটির কথা বলেন, তখন অন্য ব্যক্তির খারাপ লাগতে পারে। এমন পরিস্থিতিতে আপনার সঙ্গীরও খারাপ লাগতে পারে। এতে তাদের আত্মবিশ্বাসে আঘাত লাগে।

এখন পর্যন্ত লুকানো জিনিসগুলি উল্লেখ করবেন না : অনেক সময় আপনি আপনার সঙ্গীর মেজাজ ভাল দেখে বা আবেগে ভেসে এমন কাজগুলি করেন যা আগে বলা হয়নি। আপনি যদি না চান আপনার সঙ্গীর মন ভেঙ্গে যাক বা ঝগড়া না হোক, তাহলে সেসব কথা বলা উচিত নয়।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles