25.3 C
Toronto
শনিবার, জুন ২৫, ২০২২

মৃত্যুর আগে পোস্টে কী লিখেছিলেন কেকে

- Advertisement -
মৃত্যুর আগে পোস্টে কী লিখেছিলেন কেকে
ফাইল ছবি

কলকাতার এক অনুষ্ঠানে মঙ্গলবার (৩১ মে) রাতে না ফেরার দেশে চলে গেলেন ভারতের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী কৃষ্ণকুমার কুন্নাথ (কেকে)। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেষ পোস্টে বলেছিলেন জীবনের স্পন্দনের কথা। তার পরেই থেমে গেল কেকের হৃদস্পন্দন।

এদিন গুরুদাস কলেজের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এসেছিলেন বলিউডের এই গায়ক। সন্ধ্যায় নজরুল মঞ্চে চলছিল অনুষ্ঠান। সেখানেই অসুস্থ বোধ করেন তিনি। তারপর হোটেলে ফিরে যান গায়ক। রাতে দ্রুত তাকে সিএমআরআই হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে জরুরি বিভাগের চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৪ বছর।

মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা আগে ইনস্টাগ্রামে শেষ পোস্টে তিনি লিখেছিলেন, নজরুল মঞ্চে লাইভ শোয়ে স্পন্দন টের পাচ্ছেন। সব দর্শক শ্রোতাদের ভালোবাসাও জানিয়েছিলেন সেখানে। কে জানত, সেই পোস্টের আর কয়েক ঘণ্টা পরেই এই শিল্পীর হৃদস্পন্দন থেমে যাবে।

দিন কয়েক আগে পুণেতে অনুষ্ঠান করেছিলেন এই শিল্পী। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবি দিয়েছিলেন সেই অনুষ্ঠানেরও। তার পরে মঙ্গলবার হাজির হন কলকাতায়। আসার পথে মুম্বাই থেকে বিমানে ওঠার আগে ছবি দেন সামাজিক মাধ্যমে। লেখেন কলকাতা যাওয়ার পথে ছবি।

সে সব ছবিই এখন ভক্ত-অনুরাগীদের আরও ব্যথিত করে তুলেছে মঙ্গলবার রাতে।

কী কারণে মৃত্যু হয়েছে, তা এখনও জানা যায়নি। তবে মনে করা হচ্ছে, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে প্রখ্যাত এই শিল্পীর। তার মরদেহের ময়নাতদন্ত করা হবে বলে জানা গেছে। ইতোমধ্যেই খবর পৌঁছেছে মুম্বাইয়ে তার বাড়িতে। বুধবার (০১ জুন) সকালেই তার স্ত্রী ও দুই ছেলে কলকাতায় এসে পৌঁছাবেন বলে জানান রাজ্যের মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস।

বেসিক হিন্দি গানে জনপ্রিয় কেকে। ১৯৯৭ সালে ‘হাম দিল দে চুকে সনম’ ছবিতে প্রথম প্লেব্যাক। হিন্দি, বাংলা, তামিল, তেলেগু, কন্নড়, মালায়লম, মারাঠি, ভাষায় প্লেব্যাক করেছেন। ২০০৫-এ তামিল ভাষায় বেস্ট প্লেব্যাক সিঙ্গার নির্বাচিত হন। ২০১০ সালে কন্নড় ভাষায় সাউথের ফিল্ম ফেয়ার অ্যাওয়ার্ড পান।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles