15.3 C
Toronto
রবিবার, মে ২৯, ২০২২

শাহবাজ শরীফকে পাকিস্তানের ‘প্রধানমন্ত্রী’ ঘোষণা

- Advertisement -
শাহবাজ শরীফকে পাকিস্তানের ‘প্রধানমন্ত্রী’ ঘোষণা - The Bengali Times
শাহবাজ শরীফ

ম্যাচ শেষ হওয়ার আগেই মাঠে ‘দর্শক’ ঢুকিয়ে দিয়েছিলেন ইমরান খান। তাতে ম্যাচ ভন্ডুল হয়ে গেলেও বিপক্ষ দল পিছিয়ে থাকল না। নিজেরাই নিজেদের জয়ী ঘোষণা করে শাহবাজ শরীফকে পাকিস্তানের ‘ক্যাপ্টেন’ তথা প্রধানমন্ত্রী হিসাবে বেছে নিয়েছেন বিরোধীরা।

হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে, রোববার (৩ এপ্রিল) প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে উৎখাত করতে বিরোধীদের আনা অনাস্থা প্রস্তাব ‘অসাংবিধানিক’ আখ্যা দিয়ে খারিজ করে দেন ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির ডেপুটি স্পিকার কাশিম সুরি।

- Advertisement -

সেই সঙ্গে ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত পার্লামেন্ট অধিবেশন মুলতবিও করেন তিনি। এরপর প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের পরামর্শে পার্লামেন্ট ভেঙে দেন প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভি।

নজিরবিহীন এই রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার মধ্যে এদিন নিজেরাই ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির অধিবেশন শুরু করেন বিরোধী নেতারা। অধিবেশনে অনাস্থা প্রস্তাব খারিজ করে দেওয়ার সিদ্ধান্তকে ‘অবৈধ’ বলে ঘোষণা করা হয়।

শুধু তাই নয়, ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির বিরোধী দলনেতা শাহবাজকে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে ঘোষণা করা হয়েছে। টুইটারে একটি ভিডিও বার্তায় পাকিস্তান পিপল‘স পার্টির (পিপিপি) শেরি রেহমান দাবি করেছেন, পিএমএল-এন সাংসদ আয়াজ সাদিককে নয়া স্পিকার হিসাবে নির্বাচিত করা হয়েছে। এতে ভোট দিয়েছেন ১৯৭ জন সংসদ সদস্য।

পাকিস্তানের সাবেক তিন তিনবারের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের ভাই ও পিএমএল-এন নেতা শাহবাজ শরীফ প্রধানমন্ত্রী হিসাবে অ্যাসেম্বলিতে ভাষণও দিয়েছেন।

প্রতিবেদন মতে, স্পিকার নির্বাচিত হওয়ার পর সাদিক ইমরান খানের সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব চালু করেন। পার্লামেন্টে ইমরান খানের শাসক জোটের সদস্যদের অনুপস্থিতিতে অনাস্থা প্রস্তাবের পক্ষে রায় দিয়েছেন বিরোধীদলীয় সাংসদেরা।

২৫ এপ্রিল পর্যন্ত মুলতবি হওয়ার পর পার্লামেন্টের অধিবেশন পুনরায় আহ্বান করার ক্ষেত্রে এটি একটি প্রতিবাদী পদক্ষেপ বিরোধীদের। নিয়মানুসারে, স্থগিত হওয়া অধিবেশন কেবল প্রেসিডেন্ট বা স্পিকারই ডাকতে পারেন।

 

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles