11.7 C
Toronto
মঙ্গলবার, জুন ২৮, ২০২২

নিহত মুসলিম পরিবারের চার সদস্যকে স্মরণে লন্ডনে সভা

- Advertisement -
নিহত মুসলিম পরিবারের চার সদস্যকে স্মরণে লন্ডনে সভা
সারা জাবাখানজির টুইটার পোস্ট থেকে ছবিটি নেয়া

কানাডায় ট্রাক উঠিয়ে দিয়ে একটি মুসলিম পরিবারের চারজনকে হত্যার বিষয়টি অবিশ্বাস্য উল্লেখ করে লন্ডনের মেয়র এড হোল্ডার বলেন, এর যে যন্ত্রণা তা বর্ণনা করার মতো নয়। এ ঘটনার পর নগরীর মুসলিম কমিউনিটির মধ্যে উদ্বেগ ও ভয় কাজ করছে আমি সেটা বুঝতে পারি। তাদেরকে আমি বলতে চাই, পুরো কমিউনিটিই তাদের এই ব্যথাটা অনুভব করতে পারছে। আমরা সবাই লন্ডনার। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এক স্মরণ অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেছেন। ট্রাকের ধাক্কায় নিহত মুসলিম পরিবারের চার সদস্যকে স্মরণ করতে লন্ডন মসজিদে হাজারো মানুষ সমবেত হন। রোববারের ওই হামলা এবং ঘৃণার বশবর্তী হয়েই যে এটা ঘটানো হয়েছে সেটা সামনে আসার পর সমগ্র লন্ডন কমিউনিটি শোকাহত। সন্ত্রাসী হামলার অভিযোগ আনারও দাবি তুলেছেন কেউ কেউ।

পরিবারের সদস্যরা রোববার সন্ধ্যায় হাঁটতে বের হলে একটি পিক-আপ ট্রাক তাদেরকে ধাক্কা দেয়। এতে পরিবারের চার সদস্য নিহত হন। তাদের বয়স ১৫ থেকে ৭৪ বছর। পরিবারের পঞ্চম সদস্য ৯ বছরের একটি শিশুও গুরুতর আহত হয়েছে। তবে তার সেরে ওঠার সম্ভাবনা দেখছেন চিকিৎসকরা।

ধাক্কা দেওয়া ট্রাকের চালক ২০ বছর বয়সী নাথানিয়েলে ভেল্টম্যান ঘটনার পরপরই পালিয়ে যান। তবে এর কিছুক্ষণ পরই পাশর্^বর্তী একটি মল থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার বিরুদ্ধে ফার্স্ট-ডিগ্রি হত্যার চারটি ও হত্যাচেষ্টার একটি অভিযোগ আনা হয়েছে।

এ ঘটনায় অন্টারিওর প্রিমিয়ার ডগ ফোর্ড মঙ্গলবার সকালে কুইন’স পার্কে সাংবাদিকদের বলেন, ধর্ম ও বিশ্বাসের ভিত্তিতে নিরপরাধ ব্যক্তিদের ওপর এটা সন্ত্রাসী হামলা ছাড়া আর কিছুই নয়। অন্টারিওতে এ ধরনের ঘটনার কোনো স্থান নেই। আমাদের কমিউনিটি এক সঙ্গে আছে এবং মুসলিম কমিউনিটির পেছনে আমরা একাট্টা থাকবো।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles