24.5 C
Toronto
শুক্রবার, জুলাই ১৯, ২০২৪

‘আত্মহত্যা ছাড়া উপায় থাকবে না’, হঠাৎ কেন এমন বললেন নাসরিন?

‘আত্মহত্যা ছাড়া উপায় থাকবে না’, হঠাৎ কেন এমন বললেন নাসরিন? - the Bengali Times

পাঁচ শতাধিক ছবির সফল অভিনেত্রী নাসরিন। চলচ্চিত্রে কাজ করছেন ১৯৯২ সাল থেকে। কিন্তু হঠাৎই তিনি বলে বসলেন, আত্মহত্যা ছাড়া তার আর কোনো উপায় থাকবে না। কিন্তু কেন এমন হতাশার কথা বললেন অভিনেত্রী? হঠাৎ কী এমন ঘটল তার জীবনে?

- Advertisement -

আসলে, সম্প্রতি ‘জীবনের গল্প কথা’ নামে একটি ফেসবুক পেজ থেকে এক নারীর একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে। সেই ভিডিওতে ওই নারী নিজেকে যৌনকর্মী বলে পরিচয় দেন। দাবি করেন, তাকে এই পথে নিয়ে এসেছেন অভিনেত্রী নাসরিন।

ওই ভিডিও দেখার পর থেকেই মানসিকভাবে মুষড়ে আছেন নাসরিন। জীবদ্দশায় নিজের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ তিনি মানতে পারছেন না। ওই ভিডিওর জেরেই শনিবার সকালে কান্নাজড়িত কণ্ঠে গণমাধ্যমে নিজের অসহায়ত্ব তুলে ধরে আত্মহত্যার কথা বলেন তিনি।

নাসরিনের কথায়, ‘চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রিতে একজনও আমার চরিত্রের দিকে আঙুল তুলতে পারবে না। সেখানে কোথাকার এক অপরিচিত মেয়ে আমার বদনাম করছে। এটা আমি কোনোভাবেই মানতে পারছি না। এভাবে অপমানিত হয়ে বাঁচতে পারব না, এর সমাধান না হলে আত্মহত্যা ছাড়া আমার আর উপায় থাকবে না।’

অভিনেত্রী আরও বলেন, ‘অনেক কষ্ট আর সংগ্রাম করে আজকের অবস্থান তৈরি করেছি। চলচ্চিত্র জগতের সবাই জানেন আমি কেমন মানুষ। কারও উপকার ছাড়া কখনোই ক্ষতি করার চেষ্টা করিনি।’ তার দাবি, চলচ্চিত্রশিল্পী সমিতির নির্বাচন বা ব্যক্তিগত কোনো আক্রোশ থেকে কেউ হয়তো আমার ক্ষতি করার চেষ্টা করছে।’

ঘটনাটি নিয়ে চিন্তিত নাসরিনের স্বামী ব্যবসায়ী মোস্তাফিজুর রহমান রিয়েলও। ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি বলেন, ‘নাসরিনের ক্যারিয়ারের ৩০ বছরে তার চরিত্র নিয়ে কেউ একটি কথাও বলতে পারেনি। তার সবচেয়ে বড় শক্তির জায়গাই হচ্ছে চরিত্র। সেখানে একজন অপরিচিত নারী উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে কালিমা লেপন করার চেষ্টা করছে।’

এ ঘটনায় গত ১০ ফেব্রুয়ারি রামপুরা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে বলে জানান নাসরিনের স্বামী। তিনি বলেন, ‘আমাদের জিডিটি সাইবার ক্রাইম ইউনিটে স্থানান্তর করা হয়েছে। এখন আমরা বিচারের অপেক্ষায় আছি।’ যদিও জিডি করার ১৬ দিন পরও ওই ফেসবুক পেজে সেই ভিডিওটি এখনও দেখা যাচ্ছে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles