4.9 C
Toronto
মঙ্গলবার, অক্টোবর ২৬, ২০২১

চাইল্ড কেয়ার সেন্টারে কোভিড বিধিতে কোনো পরিবর্তন আনা হয়নি

ছবি/ গ্লান্স মোভিংটো চাইল্ডকেয়ার

গত দুই সপ্তাহে অন্টারিওর চাইল্ড কেয়ার সেন্টারগুলোতে মাত্র ৫০ জন কর্মী ও শিশু কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন। স্কুলে যাওয়ার বয়স হয়নি এমন শিশুদের ডে কেয়ারে মাস্ক পরার দরকার হচ্ছে না এবং তাদেরকে ভ্যাকসিনও দেওয়া হয়নি। এদিকে, গত গ্রীষ্মে অন্টারিওর চাইল্ড কেয়ার সেন্টারগুলো খুলে দেওয়ার পর থেকে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত বিধিতে কোনো পরিবর্তন আনা হয়নি। অনেক অভিভাবক ও সেবাদাতারা বলছেন, কর্মীদের যদি মাস্ক পরতে হয় তাহলে অন্য নীতিগুলো পুনর্বিবেচনা করা উচিত। অভিভাবকদের ভবনে প্রবেশ করতে দেওয়া এর মধ্যে অন্যতম।

একটি চাইল্ড কেয়ার সেন্টারের কর্ণধার কিম ইয়ামান বলেন, পুরো প্রদেশ রিওপেনিং পরিকল্পনার বিভিন্ন ধাপের মধ্য দিয়ে গেলেও চাইল্ড কেয়ারের ক্ষেত্রে এ ধরনের কোনো ধাপ নেই। তৃতীয় ধাপে টরন্টো এফসি স্টেডিয়ামে হাজারো দর্শক পেলেও চাইল্ড কেয়ার সেন্টারে শিশুদের নিয়ে হাঁটার কোনো সুযোগ নেই অভিভাকদের।

কোভিড বিধিতে যতটা সম্ভব অভিভাবকদের ভবনের মধ্যে প্রবেশ নিরুৎসাহিত করা হয়েছে। ফটকের সামনে শিশুদের ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে। অনেক সময় শিক্ষকদের হাতে তাদেরকে তুলে দেওয়া হচ্ছে, যারা তার শিক্ষক নন। এর ফলে সারাদিন যারা তাদের সন্তানের দেখাশুনা করবে তাদের সঙ্গে যোগাযোগের সুযোগ পাচ্ছেন না অভিভাবকরা।

মহামারির মধ্যে ডে কেয়ার সেন্টারে থাকছে কেটি লিডেলের দুই বছরের ছেলে। কিন্তু এখন পর্যন্ত একবারের জন্যও ক্যালেডন সেন্টারের অভ্যন্তরে পা পড়েনি লিডেলের। তিনি বলছিলেন, সারাদিন সে কি করে সে সম্পর্কিত পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন আমি পাই। কিন্তু একজন অভিভাবক হিসেবে সেসব সরাসরি দেখার কোনো সুযোগ নেই। চাইল্ড সেন্টারের কোভিড প্রটোকল মেনে চলায় আমি খুশি। তবে সীমিত ভিত্তিতে হলেও অভিভাবকদের ভেতরে প্রবেশে সুযোগ দিলেও ব্যাপারটা আরও ভালো হতো।

ব্যারির ডিসকভারি চাইল্ড কেয়ারের কারেন এইলারসন বলেন, শিশুদের পরিবার থেকে আনা-নেওয়ার জন্য আমার দুই থেকে তিনজন অতিরিক্ত কর্মী প্রয়োজন। কিন্তু কর্মী স্বল্পতায় ভোগা খাতটির পক্ষে কর্মীদের অন্য কাজে নিযুক্ত করা সত্যিই খুব কঠিন। সত্যি বলতে, আমাদের সেন্টারে শিশুর তুলনায় কর্মীর সংখ্যা দ্বিগুন। বিদ্যমান কোভিড বিধি যদি অব্যাহত থাকে তাহলে কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়া অসম্ভব হয়ে পড়বে।

তবে শিক্ষামন্ত্রী স্টিফেন লেচির একজন মুখপাত্র যে বিবৃতি দিয়েছেন তাতে শিগগিরই কোভিড বিধি হালনাগাদের কোনো ইঙ্গিত নেই। এর অর্থ হচ্ছে বিদ্যমান নিয়মই চলবে। মুখপাত্র কেইটলিন ক্লার্ক তার বিবৃতিতে বলেছেন, স্বাস্থ্য ও সুরক্ষা সংক্রান্ত প্রশিক্ষণ, প্রটোকল মেনে চলা, হাত ধোয়ার অভ্যাস করা, নিয়মিত পরীক্ষা করা, মাস্ক করা ও শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে চলা চাইল্ড কেয়ার সেন্টারগুলোর পরিবেশ নিরাপদ রাখার প্রধান উপাদন।

- Advertisement - Visit the MDN site

Related Articles

- Advertisement - Visit the MDN site

Latest Articles