15.7 C
Toronto
সোমবার, মে ২৭, ২০২৪

উর্দু উচ্চারণে কটাক্ষ, ১৩ বছর দীলিপ কুমারের সাথে কথা বলেননি লতা

উর্দু উচ্চারণে কটাক্ষ, ১৩ বছর দীলিপ কুমারের সাথে কথা বলেননি লতা - the Bengali Times
ফাইল ছবি

যে কন্ঠ ও সুর হৃদয়ের রোগ সারিয়ে দিতে পারে এমন কন্ঠ ও সুরের অধিকারী লতা মঙ্গেশকর। হাজারো অমর গানের গায়িকাও তিনি। সুরসম্রাজ্ঞী লতা যেনো সুরের দেবী লক্ষ লক্ষ অনুরাগীর কাছে। দুঃখের কথা, করোনার তৃতীয় ঢেউয়ে করোনায় আক্তান্ত হয়েছেন এই বর্ষীয়ান গায়িকা। সাথে চেপে বসেছে নিউমোনিয়া। যে কারণে চিন্তায় ঘুম উড়েছে ভক্তদের। এই মুহূর্তে মুম্বাইয়ের ব্রিচ ক্যান্ডি হাসপাতালের আইসিইউ-তে চব্বিশ ঘন্টা চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণের মধ্যে রয়েছেন তিনি।এই মুহূর্তে গায়িকার পরিস্থিতি যথেষ্ট স্থিতিশীল।

কিংবদন্তি এই গায়িকাকে প্রকাশ্যে করোও সমন্ধে কটু কথা তো দূরের কথা, কারও প্রতি রাগ করতে দেখা গেছে কি না তা নিয়ে রয়েছে যথেষ্ট সন্দেহ।

- Advertisement -

তবে একটি না জানা বিষয় জেনে অবাক হতে পারেন এই গায়িকা সম্পর্কে। একটা সময়ে নাকি দিলীপ কুমারের সঙ্গে কথা বলা বন্ধ ছিল লতার। কিংবদন্তি বলিউড তারকার উপর রাগ করে তার সঙ্গে ১৩ বছর কথা বলা বন্ধ করেছিলেন লতা!

প্রয়াত কিংবদন্তি অভিনেতার সঙ্গে দাদা-বোনের সম্পর্ক ছিল লতার। নিজের বোনের মতোই লতাকে স্নেহ করতেন দিলীপ কুমার। দিলীপ কুমারকে বহু বছর ধরে রাখিও পরিয়েছেন সুরসম্রাজ্ঞী।

তবে এমন কী হল যার জন্য বাক্যালাপ বন্ধ হয়ে গেল এই দু’জনের মধ্যে?

একবার সলীল চৌধুরীর ‘মুসাফির’ ছবি ‘লাঘি না ছোট’ গানটি গাওয়ার জন্য দিলীপ কুমারকে নির্বাচন করা হয়েছিল, এদিকে লতা জানতেন না তিনি দিলীপের সাথে গান গাইবেন। সেই গানকে কেন্দ্র করেই শুরু হয়েছিল গণ্ডগোলের সূত্রপাত।

উর্দু ভাষায় দুর্দান্ত পারদর্শী ছিলেন দিলীপকুমার। সেই ভাষার উপর অসম্ভব দখল ছিল তার। বিখ্যাত সঙ্গীতজ্ঞ অনিল বিশ্বাসকে ‘মুঘল-এ-আজম’ এর নায়ক জিজ্ঞেস করেছিলেন লতা কোন শহরের?

জবাবে জানতে পেরেছিলেন মহারাষ্ট্রের। শোনামাত্র তিনি মন্তব্য করেছিলেন মহারাষ্ট্রবাসীরা গান গাইতে ওস্তাদ হলেও তাদের উর্দু উচ্চারণ মোটেও অতটা সাবলীল নয়। কথাটা কোনওভাবে কানে গিয়েছিল লতার। এতটাই তার খারাপ লেগেছিল যে তার ‘দাদা’র সঙ্গে কথা বলাই বন্ধ করে দিয়েছিলেন। এরপর নিজের উর্দু উচ্চারণ আরও নিখুঁত করে আলাদা করে উর্দুর প্রশিক্ষণও নিয়েছিলেন।

এর বহু বছর পর অবশ্য ১৯৭০ সালে আবার কথা বলা শুরু হয় দিলীপ কুমার এবং লতা মঙ্গেশকরের।

সূত্রঃ হিন্দুস্তান টাইমস

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles