-17 C
Toronto
শুক্রবার, জানুয়ারী ২৮, ২০২২

মার্কিন পণ্যে শুল্ক বাড়ানোর হুমকি কানাডার

- Advertisement -
উপপ্রধানমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড

ইলেক্ট্রিক ভেহিকল নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে চলমান বিবাদে শুক্রবার বড় ধরনের ঝুঁকি নিয়ে ফেলেছে কানাডা। মার্কিন কংগ্রেস যদি শেষ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে তৈরি ইলেক্ট্রিক গাড়িতে বিতর্কিত প্রণোদনা প্রস্তাব অনুমোদন করে তাহলে পাল্টা হিসেবে শুল্ক বাড়ানোর হুমকি দিয়েছে কানাডা।

সেনেট নেতৃত্ব ও কি কমিটির নেতাদের কাছে লেখা এক চিঠিতে কানাডার উপপ্রধানমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড ও বাণিজ্যমন্ত্রী মেরি এনজি প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ট্যাক্স ক্রেডিট প্রস্তাব আইনে পরিণত হলে যুক্তরাষ্ট্রে তৈরি বেশ কিছু পণ্যে শুল্ক আরোপের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

- Advertisement -

মার্কিন প্রস্তাবে কানাডায় সংযোজিত ইলেক্ট্রিক গাড়ির ওপর ৩৪ শতাংশ শুল্ক আরোপের কথা বলা হয়েছে। এটা ইউএস-মেক্সিকো-কানাডা বাণিজ্য চুক্তির শর্তের লঙ্ঘন উল্লেখ করে মন্ত্রীরা বলেছেন, এর একটা সন্তোষজনক মীমাংসা না হলে কানাডা তার জাতীয় স্বার্থ রক্ষায় পিছপা হবে না। কানাডার ইস্পাত ও অ্যালুমিনিয়ামের ওপর অন্যায্য শুল্ক আরোপের সময়ও আমরা সেটা করে দেখিয়েছি।

যেসব মার্কিন পণ্যের ওপর শুল্ক আরোপ করা হতে পারে তার একটি তালিকা তৈরির প্রস্তুতি নিচ্ছে কানাডা। তবে এটা শুধু অটোমোবাইল খাতেই সীমাবদ্ধ থাকবে না। এসব কথা লেখা হয়েছে ডেমোক্র্যাটিক সেনেটর চাক শুমার এবং রিপাবলিকান সেনেটর মিচ ম্যাককোনেলকে উদ্দেশ্য করে। তারা সেনেটে সংখ্যাগরিষ্ঠ ও সংখ্যালঘিষ্ঠ দলের নেতা। চিঠির একটি কপি পাঠানো হয়েছে ওয়েস্ট ভার্জিনিয়ার সেনেটর এবং এনার্জি অ্যান্ড ন্যাচারাল রিসোর্সেস কমিটির চেয়ারম্যান জো মানচিনের কাছেও।

ট্যাক্স ক্রেডিট পাস হলে নির্দিষ্ট ইলেক্ট্রিক গাড়ি ১২ হাজার ৫০০ ডলার পর্যন্ত প্রণোদনা পাবে। তবে সেটা যুক্তরাষ্ট্রে তৈরি এবং ইউনিয়ন লেবারের মাধ্যমে সংযোজিত হতে হবে।

ইউএস-মেক্সিকো-কানাডা বাণিজ্য চুক্তির আওতায় মার্কিন দুগ্ধজাত পণ্য উৎপাদকরা যে ছাড় পেয়ে আসছেন তাতেও ইতি টানার হুমকি দেওয়া হয়েছে চিঠিতে।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles