4.2 C
Toronto
শনিবার, অক্টোবর ২৩, ২০২১

একটি ফুলের গল্প

ছবি : ইন্টারনেট

ফুলটি দেখতে অনেকটা গোলাপের মতো | আমাদের দেশের বাগানে এটি অনেকটা দুষ্প্রাপ্য | রবীন্দ্রনাথ ঢাকার বলদা গার্ডেনে ক্যামেলিয়া ফুলটি প্রথম দেখে খুবই আকৃষ্ট হন | এটি ১৯২৬ সালের ফেব্রুয়ারির কথা | সেটাই ছিল তাঁর শেষবারের মতো ঢাকায় আগমন |

তারপর কলকাতায় ফিরে ১৩৩৯ বঙ্গাব্দের ২৭ শ্রাবণ তিনি লেখেন ‘ক্যামেলিয়া’ কবিতাটি | যা তাঁর ‘পুনশ্চ’ কাব্যে স্থান পেয়েছে |

পরে এই বিখ্যাত কবিতাটি নিয়ে নির্মিত হয়েছে চলচ্চিত্রও | রবীন্দ্রনাথের স্মৃতিধন্য বলদা গার্ডেনের ‘ক্যামেলিয়া হাউস’-এ এখনো রয়েছে অনেক ক্যামেলিয়া গাছ |

আমাদের দেশে এটি গুল্মজাতীয় উদ্ভিদ | এর উচ্চতা ৬-১২ ফুট | চিরসবুজ এই গাছটির পাতা ডিম্বাকৃতি, মসৃণ, উজ্জ্বল ও কিনারা করাতের মতো সামান্য খাঁজকাটা | ফুল একক বা যুগ্ম দুরকমই হতে পারে | ফুল গন্ধহীন লাল, সাদা বা গোলাপি হয়ে থাকে |উষ্মমণ্ডলীয় আবহাওয়ায় ছায়াময় স্থান এর পছন্দ |

ক্যামেলিয়া বসন্তের ফুল হলেও শীতেই ফুটতে শুরু করে | পাশ্চাত্যে বিয়েতে সাদা ক্যামেলিয়া উপহার হিসেবে দেওয়ার রীতি চালু আছে | সারা বিশ্বে এর প্রজাতি সংখ্যা প্রায় ৪৫ | গুটিকলমের মাধ্যমে এর বিস্তার ঘটে | চায়ের মতো কুঁড়ি থেকেও চারা করা যায় |

এটি মজাদার পানীয় তৈরিতে ব্যবহৃত হয় | ক্যামেলিয়া ঠান্ডাজনিত সমস্যা দূর করে এবং স্নায়বিক প্রশান্তি আনে | এর আদিনিবাস জাপান ও কোরিয়া |

তথ্যসূত্র : উইকিপিডিয়া ও বিভিন্ন বইপত্র

টরন্টো, কানাডা

- Advertisement - Visit the MDN site

Related Articles

- Advertisement - Visit the MDN site

Latest Articles