21.7 C
Toronto
মঙ্গলবার, আগস্ট ৯, ২০২২

পুলিশের নজরদারিতে তাহসান-মিথিলা-ফারিয়া

- Advertisement -
তাহসান-মিথিলা-ফারিয়া

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালি হয়ে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে মামলা হয়েছে তাহসান খান, রাফিয়াত রশিদ মিথিলা ও শবনম ফারিয়ার বিরুদ্ধে। মামলার পর তাদেরকে নজরদারিতে রাখা হয়েছে। এ মামলায় আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগের সত্যতা মিললে যেকোনো সময় তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

যেকোনো সময় তাদের গ্রেপ্তার করা হবে বলে জানিয়েছেন ডিএমপির রমনা বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) সাজ্জাদুর রহমান।

শুক্রবার (১০ ডিসেম্বর) সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) রমনা বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) সাজ্জাদুর রহমান এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, চটকদার বিজ্ঞাপন ও বেশি মুনাফার লোভ দেখিয়ে হাজারো গ্রাহককে এরই মধ্যে পথে বসিয়েছে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালি। এমন অভিযোগে এক ব্যক্তি মামলা করেছেন। প্রতিষ্ঠানটির প্রতারণার শুরু থেকে সংযুক্ত করা হয়েছিল নামিদামি তারকাদের।

এর আগে রাজধানীর ধানমণ্ডি থানায় গত ৪ ডিসেম্বর ইভ্যালির এক গ্রাহক এই মামলা দায়ের করেন। মামলার এজাহারে সাদ স্যাম রহমান অভিযোগ করেন, ইভ্যালি থেকে তিন লাখ ১৮ হাজার টাকায় মোটরসাইকেল অর্ডার করেছিলেন তিনি। কিন্তু তাকে পণ্য ডেলিভারি দেওয়া হয়নি, টাকাও ফেরত পাননি।

মামলায় আসামি করা হয়েছে ৯ জনকে। ইভ্যালির এমডি রাসেল ও তার স্ত্রী শামীমা ছাড়াও মামলায় পাঁচ নম্বর আসামি করা হয়েছে সংগীতশিল্পী তাহসানকে। ৮ ও ৯ নম্বর আসামি করা হয়েছে অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া ও রাফিয়াদ রশিদ মিথিলাকে।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles