‘নির্বাচনের নামে প্রহসনের কী দরকার’

- Advertisement -

ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিপুলসংখ্যক প্রার্থীর নির্বাচিত হওয়া নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিএনপির সাংসদ হারুনুর রশীদ। প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, রূপকল্প যদি ২০৪১ পর্যন্ত থেকে থাকে তাহলে নির্বাচনের নামে প্রহসনের দরকার কী?

- Advertisement -

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদের বিশেষ আলোচনায় অংশ নিয়ে হারুনুর রশীদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশে এ প্রশ্ন রাখেন। সংসদ নেতা শেখ হাসিনা এ সময় অধিবেশন কক্ষে উপস্থিত ছিলেন।

সাংসদ হারুনুর রশীদ বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী, আপনার রূপকল্প ২০৪১ পর্যন্ত রয়েছে। দরকার কী নির্বাচনের নামে এই ধরনের প্রহসন, হানাহানি, খুনোখুনি, সংঘাতের। দরকার কী?’

- Advertisement -

হারুনুর রশীদ বলেন, সংবিধানে বলা আছে- স্থানীয় প্রতিনিধিরা হবেন নির্বাচিত। চলমান ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে এখন পর্যন্ত তিন-চার শ চেয়ারম্যান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। তাদের কে নির্বাচিত করল? তারা কীভাবে দায়িত্ব পালন করবেন?

- Advertisement -

স্পিকারের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করে হারুন বলেন, ‘আমি আপনার কাছে জানতে চাই, আজকে যারা বিনা ভোটে নির্বাচিত, নির্বাচন কমিশন যাদের নির্বাচিত ঘোষণা করেছে, তাদের আমি কী বলব? অনির্বাচিত, না নির্বাচিত? তারা তো নিশ্চয়ই বিনা ভোটে নির্বাচিত।’

এসময় বিএনপির অসুস্থ চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া প্রসঙ্গে সংসদ নেতা শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ করে তিনি আরও বলেন, ‘আমি সংসদ নেতার সাথে বহুবার কথা বলেছি। আমি অনুরোধ করেছি যে দেখেন, ওনার যে শারীরিক অবস্থা, ওনাকে বিদেশে চিকিৎসার জন্য নিতে অনুমতি দিতে আপনার অসুবিধা কোথায়? আপনি তাকে বিদেশে চিকিৎসার সুযোগটি দিন। এতে আপনি সম্মানিত হবেন। তার যে বয়স, যে অবস্থা, এ অবস্থায় এটা বিবেচনা করা উচিত।’

সূত্র : আমাদের সময়

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles