21.3 C
Toronto
রবিবার, জুন ১৬, ২০২৪

৯ বছরে হিট ছবি নেই তবুও পারিশ্রমিক ৪০ কোটি

৯ বছরে হিট ছবি নেই তবুও পারিশ্রমিক ৪০ কোটি
প্রিয়াঙ্কা চোপড়া

বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে পারিশ্রমিকের ক্ষেত্রে সমতা নিয়ে বহু বছর ধরে অনেক আলোচনা রয়েছে। একটা সময় ছিল যখন অভিনেতার চেয়ে অভিনেত্রীদের কম পারিশ্রমিক দেওয়া হতো। তবে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে এই ধারণাতে অনেক পরিবর্তন এসেছে। এখন অভিনেত্রীরা তাদের কাজের মান অনুযায়ী পারিশ্রমিক দাবি করেন এবং সেটা পেয়েও থাকেন।

আজ আমরা এমন একজন অভিনেত্রীর বিষয়ে জানব, যিনি প্রায় নয় বছর ধরে কোনো হিট ছবি উপহার দেননি। এমনকি পাঁচ বছর ধরে বলিউডে তার কোনো ছবিও মুক্তি পায়নি। তারপরও এখন পর্যন্ত তিনি প্রতি ছবিতে ৪০ কোটি রুপি চার্জ করেন। আর তিনি হলেন বলিউড পেরিয়ে হলিউডে যাত্রা করা প্রিয়াঙ্কা চোপড়া।

- Advertisement -

যদিও দীপিকা পাডুকোন এবং আলিয়া ভাটকে বর্তমানে ভারতের শীর্ষ অভিনেত্রী হিসেবে বিবেচনা করা হয়; তবে হলিউডে যাত্রা করার কারণে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া অন্যদের চেয়ে যথেষ্ট বেশিই পারিশ্রমিক চার্জ করেন।

ফোর্বস অনুসারে, ২০০২ সালে হামরাজ সিনেমা দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করা প্রিয়াঙ্কা বর্তমানে একটি ছবির জন্য ৪০ কোটি পর্যন্ত চার্জ করেন। আমাজন প্রাইম ভিডিও শো ‘সিটাডেল’-এর জন্য প্রিয়াঙ্কা চোপড়া এই পারিশ্রমিক নিয়েছিলেন। ফোর্বসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তিনি ভারতে একটি চলচ্চিত্রের জন্য ১৪ থেকে ২০ কোটি রুপি নেন।

যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমানোর আগে ভারতের অন্যতম প্রধান অভিনেত্রী ছিলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। তবে নয় বছরে কোনো হিট ছবি না থাকা সত্ত্বেও তিনি সবচেয়ে বেশি আয় করা ভারতীয় অভিনেত্রীদের তালিকায় রয়েছেন। তার শেষ হিট ছবি ছিল রণবীর সিং এবং দীপিকা পাডুকোন অভিনীত ‘বাজিরাও মাস্তানি’। প্রিয়াঙ্কা চোপড়া গত পাঁচ বছর ধরে বলিউডের কোনো ছবিতে কাজ করেননি। তার সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি ‘দ্য স্কাই ইজ পিঙ্ক’ ছিল ফারহান আখতারের বিপরীতে।

এ ছাড়া প্রিয়াঙ্কা চোপড়া শুধু সর্বোচ্চ পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত অভিনেত্রীই নন বরং ভারতীয় সম্পদশালী অভিনেত্রীদের মধ্যে একজন। তার সম্পদের পরিমাণ ৭৫ মিলিয়ন ডলার যা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৬২০ কোটি রুপি।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles