পর্নো ভিডিওয় দেখা মিলল পাক বিধায়কের!

- Advertisement -

 

ছবি সংগ্রহ

সাইবার অপরাধের শিকার হলেন পাকিস্তানের বিধায়ক সানিয়া আশিক। নওয়াজ শরিফের মেয়ের বান্ধবী সানিয়া সেদেশের পাঞ্জাব প্রদেশের তক্ষশীলার বিধায়ক। বরাবরই ইমরান প্রশাসনের বিরুদ্ধে সরব হতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। এবার সানিয়া পুলিশে অভিযোগ করলেন, একটি পর্ন ভিডিওয় তাঁর মুখ বসানো হয়েছে। ইতিমধ্যেই এই ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

- Advertisement -

পাকিস্তানের এক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, গত ২৬ অক্টোবর অভিযোগ দায়ের করে সানিয়া জানান, সম্প্রতি একটি ভিডিওয় নিজেকে আবিষ্কার করেন তিনি। ওই অশ্লীল ভিডিওয় তাঁর মুখ ইমপোজ করা হয়েছে বলেই দাবি তাঁর। স্বাভাবিক ভাবেই চাঞ্চল্যকর এই ঘটনা ঘিরে শোরগোল পড়ে গিয়েছে।

এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। যদিও অভিযুক্তের পরিচয় জানানো হয়নি। তদন্তের হাল হকিকত এখনও অন্ধকারে। এদিকে সোশ্যাল মিডিয়ায় একাংশের দাবি, ভিডিওয় সত্যি সত্য়িই দেখা গিয়েছে পাক বিধায়ককে। এই অভিযোগ সম্পূর্ণ উড়িয়ে দিয়েছেন সানিয়া। গত মাসে বিষয়টি জানার পরই তিনি অভিযোগ দায়ের করেন। পাশাপাশি পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা ও পাক সরকারের কাছেও বিষয়টি উত্থাপন করেন তিনি।

- Advertisement -

অভিযোগ পেয়েই তদন্তে নামে পাক পুলিশ। এরপর কয়েক সপ্তাহ কেটে গেলেও তেমন কিছু অগ্রগতি হয়নি তদন্তের। তবে লাহোর থেকে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। যদিও প্রকাশ করা হয়নি ধৃতের পরিচয়।

- Advertisement -

এদিকে ভিডিওটি সত্যি না জাল, সেবিষয়েও এখনও মুখ খোলেনি পুলিশ। এখনও পর্যন্ত সেই অর্থে এই তদন্ত নিয়ে কিছুই বলেনি পাক প্রশাসন। যাকে ঘিরে ঘনিয়েছে সংশয়ও। পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের কন্যা মারিয়াম নওয়াজের ঘনিষ্ঠ বলেই কি ইমরানের পুলিশ নিষ্ক্রিয়? এই নিয়ে গুঞ্জন ছড়িয়েছে। সানিয়ার অভিযোগ, অভিযোগ দায়ের করার পর থেকেই তিনি ফোনেও হুমকি পাচ্ছেন। সব মিলিয়ে পাক বিধায়কের অশ্লীল ভিডিও ঘিরে ক্রমেই রহস্য ঘনাচ্ছে।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles